ব্রেকিং

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে মামলা কেন গ্রহণযোগ্য হবে না? রাজ্যের কাছে হলফনামা চাইল কলকাতা হাইকোর্ট

নিউজ ডেস্ক: নিয়োগ দুর্নীতিতে এর আগে নাম জড়িয়েছে স্কুল সার্ভিস কমিশনের। এবার সামনে আসছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের একের পর এক দুর্নীতির তথ্য। প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে নজিরবিহীন দুর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ তুলে বিজেপি নেতা তাপস ঘোষ একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছেন। 

মামলাকারীর বক্তব্য, ২০১৪ সালে টেট পরীক্ষায় দুর্নীতি হয়েছে। যদিও রাজের তরফে এর বিরোধিতা বলে হচ্ছে এই মামলা গ্রহণযোগ্য নয়। প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে মামলা ‘গ্রহণযোগ্য নয়’ কেন? রাজ্যের কাছে হলফনামা চাইল কলকাতা হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার সেই মামলার শুনানি চলাকালীন রাজ্যের কাছে হলফনামা তলব করল কলকাতা হাইকোর্ট। এদিন প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব ও বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চ নির্দেশ দেয়, এক সপ্তাহের মধ্যে রাজ্যকে এই বিষয়ে হলফনামা দিয়ে জানাতে হবে। 

আইনজীবী তরুণজ্যোতি তিওয়ারি আদালতে বলেন, গত এক বছরে ছ’ দফায় ধাপে ধাপে নিয়োগ হয়েছে। যেখানে নজিরবিহীন দুর্নীতি করা হয়েছে। 

রাজ্যের তরফে দাবি করা হয়, এই মামলা গ্রহণযোগ্যই নয়। কারণ হিসেবে বলা হয়, আট বছর আগের কোনও বিষয় নিয়ে এ ভাবে জনস্বার্থ মামলা কীভাবে গ্রহণযোগ্য হতে পারে। এই নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে গিয়েছে। 

যদিও পাল্টা মামলাকারীরা বলেন, ধাপে ধাপে নিয়োগ করা হচ্ছে। চলতি বছরের এপ্রিলেও চাকরি দেওয়া হয়েছে। রাজ্য জানায়, এই নিয়োগগুলি সম্পূর্ণ আলাদা। মামলাটি খারিজ করা দরকার। এরপরই প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, কেন এই মামলা গ্রহণযোগ্য নয় তা নিয়ে রাজ্যকে হলফনামা দিতে হবে। তার প্রেক্ষিতে পাল্টা হলফনামা দেবে মামলাকারীরাও। আগামী ২১ জুন এই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।