ব্রেকিং

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

পার্সোনালিটি টেস্টে অনেক পিছিয়ে পড়েও সিভিল সার্ভিসে প্রথম হলেন শুভম, প্রকাশ হল UPSC-র মার্কস

নিউজ ডেস্ক: এবারের সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় প্রথম হয়েছেন বিহারের শুভম কুমার।  জাগৃতি অবস্থি এবং অঙ্কিতা জৈন যথাক্রমে দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থান অর্জন করেছেন।  সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় মোট ৭৬১ জন প্রার্থী যোগ্যতা অর্জন করেছেন, যার মধ্যে ৫৪৫ জন পুরুষ এবং ২১৬ জন মহিলা।

শুভম সিভিল সার্ভিসে মোট নম্বর পেয়েছেন ১০৫৪। তিনি লিখিত পরীক্ষায় ৮৭৮ নম্বর পেয়েছেন। পার্সোনালিটি টেস্টে শুভমের ঝুলিতে এসেছে ১৭৬ নম্বর। অন্যদিকে এবারের পরীক্ষায় দ্বিতীয় স্থানাধিকারী জাগৃতি অবস্থি পার্সোনালিটি টেস্টে শুভমের থেকে বেশ খানিকটা বেশি নম্বর পেয়েছেন। জাগৃতি পান ১৯৩। আর লিখিত পরীক্ষায় জাগৃতি পান ৮৫৯। মোট পেয়েছেন ১০৫২। অন্যদিকে তৃতীয় হওয়া অঙ্কিতা জৈন পেয়েছেন মোট ১০৫১ নম্বর। 

গত ২৫ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত হয় ইউনিয়ন পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সিভিল সার্ভিস পরীক্ষার ফলাফল। সেদিনই জানা যায় দেশের সবথেকে কঠিন চাকরির পরীক্ষায় প্রথম স্থান অর্জন করেছেন বিহারের কাটিহারের শুভম কুমার। এদিকে আজ বিস্তারিত মার্কস প্রকাশ হল পরীক্ষার। তাতে দেখা গিয়েছে শুভম মোট ১০৫৪ নম্বর পেয়েছেন। 

এবারে সাধারণ ক্যাটাগরির ২৬৩ জন প্রার্থী,  অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া ৮৬ প্রার্থী, অন্যান্য পশ্চাদপদ শ্রেণীর ২২৯ জন, তফসিলি জাতি ১২২ জন এবং তপশিলি উপজাতির ৬১ জনকে সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ঘোষণা করা হয়েছে।

দেশের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া শীর্ষ ২৫ প্রার্থীদের মধ্যে ১৩ জন পুরুষ এবং ১২ জন মহিলা রয়েছেন।  সফল প্রার্থীদের মধ্যে ২৫ জন প্রতিবন্ধী।  এর মধ্যে ৭ জন অর্থোপেডিক্যালি প্রতিবন্ধী, ৪ জন অন্ধ, ১০ জন শ্রবণ প্রতিবন্ধী এবং এমন ৪ জন প্রার্থী ছিলেন যাদের একাধিক প্রতিবন্ধীতা ছিল।

সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় (ইউপিএসসি সিভিল সার্ভিসেস ২০২০ ফলাফল) প্রথম হওয়া শুভম কুমার আইআইটি বোম্বে থেকে বিটেক (সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং) অধ্যয়ন করেছেন।  জাগৃতি অবস্তি দ্বিতীয় হয়েছেন।  জাগৃতি নারীদের মধ্যে শীর্ষস্থানীয়।  জাগৃতি ম্যানিট ভোপাল থেকে বিটেক (ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং) অধ্যয়ন করেছেন।

ইউপিএসসি কর্তৃক প্রকাশিত ফলাফল অনুসারে, আইএএস-এ ১৮০ জন, আইএফএস-এ ৩৬, আইপিএস-এ ২০০, সেন্ট্রাল সার্ভিসেস গ্রেড-এ ৩০২ এবং বি-গ্রেডে ১১৮ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত গত ৮ই জানুয়ারি থেকে ১৭ই জানুয়ারি পর্যন্ত মেইন পরীক্ষা হয়েছিল। ২রা অগস্ট থেকে ২২শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ইন্টারভিউ হয়েছিল। প্রিলিতে যারা পাশ করেছিলেন তাঁরাই মেইন পরীক্ষায় বসার সুযোগ পেয়েছিলেন। মোট ২০৪৬জনকে ইন্টারভিউতে ডাকা হয়েছিল।