ব্রেকিং

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

চুমু খাওয়া বা কিশোরের যৌনাঙ্গে হাত দেওয়া 'অস্বাভাবিক' অপরাধ নয়! জানাল হাইকোর্ট

 

নিউজ ডেস্ক: চুমু খাওয়া বা কিশোরের যৌনাঙ্গে হাত দেওয়া 'অস্বাভাবিক' অপরাধ নয়! এমনই মন্তব্য করল হাইকোর্ট। কিশোরের অনিচ্ছা সত্ত্বেও ঠোঁটে জোর করে চুমু খাওয়া বা তার পুরুষাঙ্গে হাত দেওয়া ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারায় অস্বাভাবিক অপরাধের পর্যায়ে অন্তর্ভুক্ত করা যায় না বলে জানাল আদালত। 

১৪ বছরের এক কিশোরকে যৌন হেনস্থা করা হয়েছে বলে দাবি করে আদালতের দ্বারস্থ হন ওই কিশোরের বাবা। গত এক বছর ধরে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি কারাবন্দি ছিল। যদিও অভিযুক্ত ব্যক্তিকে জামিন দিল বম্বে হাইকোর্ট। 

জানা গেছে, আচমকা কিশোরের বাবা জানতে পারেন, তাঁর আলমারি থেকে অনেক টাকা উধাও হয়ে গেছে। অনেক খোঁজার পর ছেলের থেকে জানতে পারেন, ওই টাকা সে দিয়েছে ওই অভিযুক্তকে। এক অনলাইন গেমের রিচার্জ করার জন্য ওই অভিযুক্তের দোকানে যেত তাঁর ছেলে। সেই দোকানেই রিচার্জ করতে যাওয়ার পর তাঁর ছেলের যৌনাঙ্গে হাত দেয় অভিযুক্ত। ঠোঁটে জোর করে চুমুও খায়। এরপরই পুলিশের দ্বারস্থ হন কিশোরের বাবা। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারায় দোকানদারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন তিনি। পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। 

যদিও, বম্বে হাইকোর্ট তার জামিন মঞ্জুর করে। বিচারপতি অনুজা প্রভুদেশাই বিবৃতিতে জানিয়েছিলেন, 'কিশোরের কথায় এবং এফআইআরে বর্ণিত বিবরণ থেকে বোঝা যাচ্ছে, আক্রান্তের যৌনাঙ্গ স্পর্শ এবং তাকে চুমু খেয়েছিল এই ব্যক্তি। কিন্তু প্রাথমিকভাবে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারায় এটিকে অস্বাভাবিক অপরাধ হিসেবে গণ্য করা যায় না।' তাছাড়াও ওই কিশোরের শারীরিক পরীক্ষার পর যে তথ্য পাওয়া গেছে, তার সঙ্গে যৌন হেনস্থা সংক্রান্ত বিবৃতির অনেক মিল নেই। তাই ৩০ হাজার টাকার বিনিময়ে অভিযুক্তকে জামিনও দেন বিচারপতি।