ব্রেকিং

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

পার্থের দেহরক্ষীর ১০ আত্মীয়-বন্ধুদের বেআইনি ভাবে চাকরি! সিবিআইকে খতিয়ে দেখার নির্দেশ কোর্টের

নিউজ ডেস্ক: শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডে ফের নাম সামনে আসছে রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নাম। বেআইনি ভাবে চাকরি দেওয়া হয়েছে পার্থের দেহরক্ষীর ১০ আত্মীয়-বন্ধুদের! নিয়োগ দুর্নীতির অভিযোগ খতিয়ে দেখবে সিবিআই। এমনই নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট।

পার্থের দেহরক্ষী বিশ্বম্ভর মণ্ডল তাঁর আত্মীয় ও পরিচিতদের বেআইনি ভাবে চাকরি পাইয়ে দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ। তা-ই খতিয়ে দেখবে সিবিআই। বুধবার কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় নির্দেশ দেন, ওই ১০ জনকে চাকরির সমস্ত নথিপত্র নিয়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সিবিআইয়ের অফিসে যেতে হবে। সেখানে সিবিআই খতিয়ে দেখবে তাঁরা আদৌ আইনি পথে চাকরি পেয়েছিলেন কি না।

পূর্ব মেদিনীপুরের চণ্ডীপুর, ময়না ও নন্দকুমার থানা এলাকার বাসিন্দা বিশ্বম্ভরের ১০ আত্মীয় এবং বন্ধু হুগলির বিভিন্ন প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষকের চাকরি করেন। সিবিআইয়ের দাবি, ওই নিয়োগ হয়েছিল বেআইনি ভাবে। পার্থের দেহরক্ষীই তাঁদের চাকরি করে দিয়েছিলেন। বুধবার আদালত বংশীলাল মণ্ডল, দেবগোপাল মণ্ডল, রিনা মণ্ডল, অরূপ ভৌমিক, অঞ্জনা মণ্ডল, গায়ত্রী মণ্ডল, পূর্ণ মণ্ডল, ভীষ্মদেব মণ্ডল, সোমনাথ পণ্ডিত এবং অমলেশ রায়— এই ১০ জনকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সিবিআইয়ের কাছে চাকরির নথি নিয়ে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। 

বুধবার আদালতে হাজির ছিলেন অমলেশ রায়ও। তিনি আদালতে দাবি করেন, ওই তালিকায় তাঁর নাম থাকলেও, তিনি যোগ্যতাবলেই চাকরি পেয়েছেন। বিচারপতি তাঁকে বলেছেন, সিবিআইয়ের কাছে চাকরির সমস্ত নথি জমা দিতে। সিবিআই নথি খতিয়ে দেখে জানাবে অমলেশ-সহ ১০ জনের চাকরি আইনি পথে হয়েছিল কি না।