ব্রেকিং

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

টেটের প্রশ্নে ‘ভুল’! প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে স্থগিতাদেশ দেওয়া হোক, তিনটি আবেদনে মামলা হাই কোর্টে

শিক্ষক নিয়োগ কলকাতা হাইকোর্ট

নিউজ ডেস্ক: প্রাথমিকের টেটের প্রশ্নে ‘ভুল’! প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে স্থগিতাদেশ চেয়ে মামলা দায়ের হল কলকাতা হাই কোর্টে। টেটের প্রশ্নে ভুল ছিল। সংশোধন না করা পর্যন্ত নিয়োগ বন্ধ রাখার আর্জিতে মামলা হল হাই কোর্টে। শুনবেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

বুধবার এমন আর্জিতে কলকাতা হাই কোর্টে মামলা করলেন ১৯ জন। তাঁদের দাবি, ২০১৭ সালের টেট পরীক্ষার আটটি প্রশ্ন এবং তার উত্তরে ভুল রয়েছে। তা ত্রুটিমুক্ত না হওয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখা হোক শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া।  আজ, শুক্রবার এই মামলার শুনানি হতে পারে।

মামলাকারী প্রসেনজিৎ সাহা-সহ ১৯ জনের অভিযোগ, ওই টেট পরীক্ষায় বাংলা, পরিবেশ বিদ্যা-সহ আটটি প্রশ্ন ভুল আছে। এর আগের দুটো টেট পরীক্ষাতেও প্রশ্নে ভুল ছিল। বার বার একই ভুল ‘ইচ্ছাকৃত ভাবে’ করে নিয়োগে গন্ডগোল করার অভিপ্রায় থাকতে পারে পর্ষদের। এখন ভুল সংশোধন না করে নিয়োগ প্রক্রিয়া চললে, তাতে ‘দুর্নীতি’ হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে। তাই নিয়োগ প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন মামলাকারীরা।

আদালতে মামলাকারীরা তিনটি আবেদন জানিয়েছেন। এক, বিশেষজ্ঞ কমিটি তৈরি করে ওই পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ঠিক-ভুল খতিয়ে দেখা হোক। দুই, প্রশ্নে ভুল থাকার জন্য ওই পরীক্ষায় সবাইকে অতিরিক্ত নম্বর দেওয়া হোক। তিন, কেন বার বার একই ভুল হচ্ছে, তার তদন্তের নির্দেশ দিক আদালত। মামলাকারীদের আইনজীবী ফিরদৌস শামিম বলেন, ‘‘এটা দুর্ভাগ্যজনক যে নির্ভুল ভাবে পর পর তিনটি টেট পরীক্ষা নিতে পারল না পর্ষদ। সবগুলিতেই প্রশ্ন ভুল রয়েছে। এখন আদালতের কাছে আমাদের আবেদন থাকল, কী হয় দেখার।’’