ব্রেকিং

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

মেয়ে অঙ্কিতার চাকরি পাচ্ছেন ববিতা! কি বললেন মন্ত্রী পরেশ অধিকারী?

 

নিউজ ডেস্ক: কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে চাকরি আগেই বাতিল হয়েছে মন্ত্রী পরেশ অধিকারীর কন্যা অঙ্কিতা অধিকারীর। অভিযোগ ছিল দুর্নীতি করে তাকে শিক্ষিকা পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল। অঙ্কিতার চাকরি পাচ্ছেন মামলাকারী ববিতা সরকার! এবার এই নিয়ে মুখ খুললেন মন্ত্রী পরেশ অধিকারী।

স্কুল সার্ভিস কমিশনের নিয়োগ সংক্রান্ত অনিয়ম মামলায় শুক্রবার রায় দিল কলকাতা হাইকোর্ট। সাত দিনের মধ্যে অঙ্কিতা অধিকারীর জায়গায় ববিতা সরকারকে নিয়োগ করতে দিয়েছেন বিচারপতি। একইসঙ্গে অঙ্কিতার ফেরত দেওয়া বেতনের টাকা ১৯ দিনের মধ্যে ববিতাকে দেওয়ার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টে এই মামলা উঠেছিল বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের  বেঞ্চে। সেখানেই এই নয়া নির্দেশ দেন তিনি। যদিও এই বিষয় নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি অঙ্কিতা অধিকারীর বাবা মন্ত্রী পরেশ অধিকারী। তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, বিষয়টি বিচারাধীন সেই কারণে তিনি এনিয়ে কোনও মন্তব্য করবেন না। বিচারাধীন বিষয় নিয়ে কোনও মন্তব্য করা ঠিক নয় বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, SSC-র পরীক্ষা ওয়েটিং লিস্টে নাম ছিল ববিতার। প্যানেল লিস্টে থাকা প্রার্থীদের চাকরির পর ওয়েটিং লিস্টের প্রার্থীদের ডাকা হয়। ববিতার নাম ছিল ২০ নম্বরে। কিন্তু, দ্বিতীয় কাউন্সেলিংয়ের পর ববিতা জানতে পারেন তাঁর নাম চলে গিয়েছে ২১-এ এবং অঙ্কিতার নাম চলে গিয়েছে ১ এ। ববিতা দাবি করেছিলেন, মন্ত্রীকন্যা পরীক্ষায় পেয়েছিলেন ৬১ নম্বর। তাঁর প্রাপ্ত নম্বর ছিল ৭৭। এই বিষয় নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন তিনি। দীর্ঘ ৪ বছর ধরে লড়াই করার পর অবশেষে হাইকোর্ট অঙ্কিতাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করার নির্দেশ দেয়। গতকালের নির্দেশে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় ববিতা সরকারকে চাকরি দেওয়ার নির্দেশ দেন।

আদালতের এই কার্যত নজিরবিহীন রায়ে খুশি ববিতা বলেন, "আমি খুব খুশি, আমার যোগ্য জায়গা আমাকে দেওয়া হয়েছে। এটা আমার বড় প্রাপ্তি।"