ব্রেকিং

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

টেট কেলেঙ্কারি: শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি প্রকাশ্যে! পদ থেকে সরানো হচ্ছে পার্থর অনুগামীদের

নিউজ ডেস্ক: রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে চাপে রয়েছে রাজ্য সরকার। ইতিমধ্যেই ২৬৯ জন প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি বাতিল হয়েছে। আরও অনেকের চাকরি যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। এরই মধ্যে নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডের পর পদ থেকে সরানো হচ্ছে প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের অনুগামীদের।

কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশের পর প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিতে চলছে সিবিআই তদন্ত। সেই মত ২০১৪ সালের পর প্রাথমিকে শিক্ষকপদে যোগ দেওয়া শিক্ষকদের তথ্য সংগ্রহ করছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। এরই মধ্যে বিভিন্ন জেলার প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যানদের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে খবর। সব থেকে তাৎপর্যপূর্ন বিষয় হল যাঁদের সরানো হচ্ছে তাঁরা দলীয় স্তরে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের অনুগামী হিসেবে পরিচিত।

এর আগে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের নির্দেশে আগেই সরিয়ে দেওয়া হয়েছে রাজ্য প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি মাণিক ভট্টাচার্যকে। ইতিমধ্যেই ম্যারাথন জেরার মুখে পড়তে হয়েছে শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারী এবং প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী তথা তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোয়াপাধ্যায়কে। তাঁর সময়ে তৈরী হওয়া কমিটির অঙ্গুলিহেলনেই বেলাইনে নিয়োগ হয়েছে সন্দেহে এফআইআর করে তদন্ত শুরু করেছে সিবিআই।

প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যানদের যেকোন মুহুর্তে পড়তে হবে সিবিআই জেরার মুখে। তাই সেই পদ থেকে পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠদের সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু কেন? সূত্রের দাবি, ২০১৪ সালের টেটে নিয়োগপত্র দেওয়ার জন্য শুধু মার্কশিট, অ্যাডমিট কার্ড এসব ভেরিফাই করা হয়েছিল। অন্য কিছু নয়।

এই একই কথা শোনা গিয়েছে অপসারিত চেয়ারম্যান তথা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী হিতেন বর্মনের মুখ থেকে। তিনি বলেছিলেন, টেট কোয়ালিফায়েড সবাই অ্যাডমিট কার্ড এবং তাদের যোগ্যতা সংক্রান্ত নথিপত্র জমা দেননি। এমনিক জয়েনিং রিপোর্টও নেই। তাই জেলা দপ্তরে ২০১৪ সালে টেট উত্তীর্ণ কতজনকে জেলায় নিয়োগ দেওয়া হয়েছে সেই হিসাবও নেই।

জানা গিয়েছে, এখন পর্যন্ত পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর দিনাজপুর এবং কোচবিহার জেলার প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যানদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছে পদ থেকে। তাঁদের স্থানে বসানো হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা দফতরের জেলা আধিকারিকদের। যারা অপসারিত হয়েছেন তাঁরা হলেন, কোচবিহার – হিতেন বর্মণ। পশ্চিম মেদিনীপুর – কৃষ্ণেন্দু অধিকারী এবং উত্তর দিনাজপুরের জাওয়াদ আলম। এরা সকলেই পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত।