ব্রেকিং

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

‘ও আমাকে মৃত স্বামীর মতোই চুমু খায়’, গরুকে বিয়ে করে নতুন সংসার পাতলেন এই বৃদ্ধা

 

নিউজ ডেস্ক: ‘ও আমাকে মৃত স্বামীর মতোই চুমু খায়’, গরুকে বিয়ে করে নতুন সংসার পাতলেন বৃদ্ধা। বৃদ্ধার দাবি, তাঁর মৃত স্বামীর সঙ্গে গরুটির আশ্চর্য মিল রয়েছে। সম্প্রতি এমন অবাক করা কাণ্ড ঘটেছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ কম্বোডিয়ায় (Cambodia)।

বৃদ্ধার নাম খিম হাং (Khim Hang)। বয়স ৭৪ বছর। কম্বোডিয়ার ক্রাতি প্রদেশের বাসিন্দা তিনি। জানা গিয়েছে, বৃদ্ধার স্বামী মারা গিয়েছেন বছর খানেক আগে। এরই মধ্যে কিছুদিন আগে একটি বাছুর তাঁর চুলে, গলায় ও ঠোঁটের কাছে মুখ এনে আদর দেখায়। বৃদ্ধার দাবি, ঠিক এভাবেই তাঁর স্বামী তাঁকে আদর করতেন। এবং তিনি মনে করেন, মুখের কাছে মুখ এনে বাছুরটি আসলে তাঁকে চুমুই খেয়েছে। এরপরেই ওই গরুটিকে বিয়ে করেছেন ৭৪ বছরের বৃদ্ধা। গ্রামবাসীরা অনেকেই সেই বিয়েতে উপস্থিত থেকে নেমতন্ন খেয়েছেন।

খিম হাং বলেন, “আমি বিশ্বাস করি এই গরুটি আসলে আমার স্বামী। কারণ গরুটি যা যা করে, আমার স্বামী বেঁচে থাকতে ঠিক তাই তাই করতেন।” বৃদ্ধা আরও বলেছেন, “গরুটি আমার ঘাড়ে, চুলের কাছের জায়গা চেটে দেয়। তার পর আমাকে চুমু খেয়ে সিঁড়ি দিয়ে আমার পিছন পিছন আসছিল। যেমনটা আমার স্বামীও করতেন। তার পর থেকেই মনে হচ্ছে, আমার স্বামীই গরু হয়ে ফের আমার কাছে এসেছেন।’’

গরুর সঙ্গে নিজের মায়ের বিয়েতে আপত্তি করেনি বৃদ্ধার ছেলে। কারণ সেও মায়ের সঙ্গে একমত। ছেলে বলেছেন, “গরুটির মধ্যে বাবার আত্মাকে অনুভব করেছি আমি।” 

বিয়ে করার পর গরুটিকে নিজের একতলার ঘরেই রেখেছেন খিম হাং। তাকে নিয়মিত স্নান করানো, খেতে দেওয়া সবই করেন। স্বামী হিসাবেই গরুটির যত্ন নেন বৃদ্ধা। নরম বালিশ, বিছানার ব্যবস্থাও করেছেন গোরূপী ‘স্বামী’র জন্য। যাতে করে সে আরামে ঘুমোতে পারে। সন্তানদেরও বাবার খেয়াল রাখতে বলেছেন হাং। তাঁর অবর্তমানে গরুটির মৃত্যু হলে সন্তানেরা যাতে বাবা হিসেবেই গরুটির সৎকার করে সেই নির্দেশও দিয়ে রেখেছেন বৃদ্ধা।