ব্রেকিং

6/recent/ticker-posts

Header Ads Widget

মাধ্যমিক ও উচ্চ-মাধ্যমিকের মূল্যায়ন ফর্মুলা ঘোষণা করা হল, ফল পছন্দ না হলে পরীক্ষার সুযোগ

 

নিউজ ডেস্ক: কিভাবে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের মূল্যায়ন করা হবে তা আজ জানানো হল। নবম এবং দশম শ্রেণির ফলের ভিত্তিতে মাধ্যমিকের মূল্যায়ন করা হবে। জানানো হয়েছে, কেউ যদি এই মূল্যায়নে অসন্তুষ্ট হন, তা হলে তাদের পরীক্ষায় বসার অনুমতি দেওয়া হবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে তবেই পরীক্ষায় বসতে পারবেন। পঞ্চাশ পঞ্চাশ ফর্মূলায় মাধ্যমিকের ফল। নবম শ্রেণির মার্কশিট এবং দশম শ্রেণির ইন্টারনাল পরীক্ষার ফল, এই দুই পরীক্ষার ফলাফলকে গুরুত্ব দিয়ে মূল্যায়ন করা হবে। নবম শ্রেণির পরীক্ষার ফল থেকে ৫০ এবং দশম শ্রেণির ইন্টারনাল অ্যাসেসমেন্ট থেকে ৫০ নম্বর নিয়ে মূল্যায়ন করা হবে। শুক্রবার ফর্মূলা ঘোষণা করল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। 

নবমের মার্কশিট, দশমের অভ্যন্তরীণ মূল্যায়নের ওপর ভিত্তি করে দেওয়া হবে মাধ্যমিকেরম মার্কশিট। ৫০-৫০ শতাংশ হারে ২০২১-এর মাধ্যমিকের মার্কশিট তৈরি করা হবে। সন্তুষ্ট না হলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পরে বসা যাবে পরীক্ষায়। পরীক্ষায় বসলে, সেই ফলাফলকেই চূড়ান্ত হিসাবে ধরা হবে। জানাল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

অন্যদিকে, ২০১৯-এর মাধ্যমিকে যে চার বিষয়ে সবচেয়ে বেশি নম্বর তাতে প্রাপ্ত সর্বোচ্চ নম্বরের উপর ৪০ শতাংশ এবং ২০২০-র একাদশ শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষায় (থিওরি) প্রাপ্ত নম্বরের উপর ৬০ শতাংশ, এই ফর্মুলায় উচ্চমাধ্যমিকের মূল্যায়ন করা হবে। মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক দু’ক্ষেত্রেই মূল্যায়নে সন্তুষ্ট না হলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হবে পড়ুয়াদের। তবে সে ক্ষেত্রে লিখিত পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরই চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে। মূল্যায়নের নম্বর সে ক্ষেত্রে কার্যকর হবে না।