Breaking News
Home / পলিটিক্স / 2019-এ কে বসবে দিল্লির কুর্সিতে! টাইমস নাও-ভিএমআরের ওপিনিয়ন পোলের একনজরে সম্ভাব্য ফল

2019-এ কে বসবে দিল্লির কুর্সিতে! টাইমস নাও-ভিএমআরের ওপিনিয়ন পোলের একনজরে সম্ভাব্য ফল

বিশ্ব বার্তা নিউজ পোর্টাল: বেজে গিয়েছে লোকসভা ভোট-2019 এর দামামা। এরই মধ্যে প্রকাশ পাচ্ছে বিভিন্ন দলের ভিন্ন ভিন্ন কৌশল। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে চলছে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের ওপিনিয়ন পোল। যদিও ওপিনিয়ন পোল সবসময় ঠিক হয় না, তবে এরও কিছুটা গুরুত্ব আছে। আজ টাইমস নাও-ভিএমআর যৌথভাবে একটি ওপিনিয়ন পোল প্রকাশ করেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে গত লোকসভার তুলনায় কিছু আসন খোয়ালেও আবার সরকার গড়ছে এনডিএ। মোট 960 টি স্থানে 14,301 জনের মতামত নিয়ে সমীক্ষাটি প্রকাশ করা হয়েছে।

টাইমস নাও-ভিএমআরের ভোট সমীক্ষার মতে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ, কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ-কে পিছনে ফেলে আবার সরকার গড়বে। তাদের মতে এনডিএ 279 টি আসন, ইউপিএ 149 টি আসন পেতে পারে। এছাড়া, অন্যান্য দলগুলো 115 টি আসনে জয় লাভ করতে পারে।

সমীক্ষার মতে এবার এনডিএ 40.8%, ইউপিএ 30.7% এবং অন্যান্যরা 28.5% ভোট পেতে পারে। 2014 সালের তুলনায় এনডিএ-র ভোট 2.6% কমতে পারে। একইভাবে আসন সংখ্যাও গত বারের তুলনায় 57 টি কমতে পারে। আসন সংখ্যা কমলেও 279 টি লোকসভা আসন জিতে আবার ক্ষমতায় বসতে চলেছে এনডিএ। 

তামিলনাড়ুতে 40 টি লোকসভা আসনের মধ্যে, ইউপিএ 33 টি এবং এনডিএ 06 টি আসন পেতে পারে। এছাড়া, অন্যরা 01 টি আসনে পেতে পারে।

উত্তরপ্রদেশে 80 টি লোকসভা আসনের মধ্যে, বিজেপি 50 টি, মহাজোট 27 টি এবং কংগ্রেস 3 টি আসন পেতে পারে। 

পশ্চিমবঙ্গে 42 টি লোকসভা আসনের মধ্যে, বিজেপি 09 টি এবং টিএমসি 31 টি আসন পেতে পারে। এছাড়া কংগ্রেস 02 টি আসনে পেতে পারে। বামফ্রন্টের এবার খাতা খুলবে না। 

পড়শী রাজ্য আসামে 14 টি আসনের মধ্যে এনডিএ  08 টি আসন, কংগ্রেস 4 টি এবং এআইইউডিএফ 2 আসনে জয় লাভ করতে পারে।

প্রধানমন্ত্রীর রাজ্য গুজরাটে 26 টি আসনের মধ্যে বিজেপি 22 টি এবং কংগ্রেস 4 টি আসন পেতে পারে।

সদ্য বিধানসভা ভোট হয়ে যাওয়া রাজস্থানে 25 টি আসনের মধ্যে বিজেপি 28টি এবং কংগ্রেস 7 টি আসন পেতে পারে।

মধ্যপ্রদেশে 29 টি লোকসভা আসনের মধ্যে বিজেপি 20 টি এবং কংগ্রেস 9 টি আসন পেতে পারে।

ছত্তীসগঢ়ে 11 টি আসনের মধ্যে 8 টিতে কংগ্রেস জয়ী হবে বলে আশা করা হচ্ছে এবং বিজেপি 3 টি আসনে জয়ী হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

বিহারের 40 টি লোকসভা আসনের মধ্যে এনডিএ 29 টি এবং ইউপিএ 11 টি আসনে জয় লাভ করতে পারে।

মহারাষ্ট্রে 48 টি লোকসভা আসনের মধ্যে, এনডিএ 38 টি এবং ইউপিএ 10 টি আসনে জয় লাভ করতে পারে।

কেরালার 20 টি লোকসভা আসনের মধ্যে এনডিএ 1 টি, ইউডিএফ 17 টি, এলডিএফ 2 টি।

লোকসভা নির্বাচনে কে জয়লাভ করবে এবং কে পরাজিত হবে … সেটা তো 23 মে জানা যাবে, তবে দেশের মানুষের মেজাজ কী, এই সমীক্ষা গুলিতে কিছুটা আন্দাজ পাওয়া যায়।

Check Also

কোনো ধর্মীয় গ্রন্থ নয় প্রমাণ অনুন, রাম জন্মস্থান পুনর্জীবন কমিটির আইনজীবীকে প্রধান বিচারপতি

বাবরি মসজিদ

সাজানো ভণ্ডামি, পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্রের সঙ্গে আপনি বর্বরতা করেছেন, মুখ্যমন্ত্রীকে মুকুল রায়

বেশ কিছুদিন ধরেই রাজ্যের শাসকদল জোর দিয়েছে জন সংযোগ কর্মসূচি। পোশাকি নাম দেওয়া হয়েছে দিদিকে বলো কর্মসূচি। এই কর্মসূচি উপলক্ষেই গত বুধবার দিঘার দত্তপুরে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। সেখানে দীঘর উন্নয়নের জন্য বেশ কিছু প্রকল্প ঘোষণা করেন। এরপর বাড়ি বাড়ি ঢুকে সাধারণ মানুষের অভাব-অভিযোগ শোনেন তিনি। যেতে যেতেই রাস্তার পাশে একটি চায়ের দোকানে ঢুকে নিজে হাতে চা বানান মুখ্যমন্ত্রী। এরপর তা পরিবেশনও করেন। এই ঘটনাকে জীবনের ছোটো ছোটো আনন্দদায়ক মুহূর্ত হিসাবেই অভিহিত করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

পদোন্নতির মাধ্যমে শিক্ষক নেওয়া হলে, আদৌ কি যোগ্য প্রার্থীরা প্রধান শিক্ষক হতে পারবেন? উঠছে প্রশ্ন!

এসএসসির মাধ্যমে সহ শিক্ষক নিয়োগে বারে বারে উঠেছে অভিযোগ। কখনো বা এনসিটির রুলস না মানা আবার কখনো বা যোগ্য প্রার্থীকে বাদ দিয়ে অযোগ্য প্রার্থীকে মেধা তালিকায় জায়গা করে দেওয়া। শুধুই যে সহ শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে এমন অভিযোগ আছে তা নয়, প্রধান শিক্ষক নিয়োগ নিয়েও উঠেছে একাধিক অভিযোগ। এসএসসির বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে আদালতে মামলা দায়ের হয়েছেও প্রচুর। ফলে রাজ্যের স্কুল গুলিতে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ বারেবারে বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে।

এক দেশ, এক পরিবার, এক সন্তান, আইন করে চালু করা উচিত: বিজেপির শরিক নেতা

এক দেশ, এক পরিবার, এক সন্তান, আইন করে চালু করা উচিত

দীঘায় চলবে সি প্লেন, তৈরি হবে পুরীর মত জগন্নাথ দেবের মন্দির: মমতা ব্যানার্জী

দীঘা

সরকারের অনৈতিক সিদ্ধান্তে বিরুদ্ধে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে

সরকারের অনৈতিক সিদ্ধান্তে বিরুদ্ধে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে

অতিথি অধ্যাপকদের স্থায়ীকরণে ইউজিসির নিয়মকে লঙ্ঘন, আদালতের পথে চাকুরী প্রার্থীদের একাংশ!

অতিথি অধ্যাপকদের স্থায়ীকরণে ইউজিসির নিয়মকে লঙ্ঘন, আদালতের পথে চাকুরী প্রার্থীদের একাংশ!