Breaking News
Home / হেড লাইনস / স্যাক্ট’এর বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা, রাজ্যের বিজ্ঞপ্তির উপর অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশের আবেদন!

স্যাক্ট’এর বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা, রাজ্যের বিজ্ঞপ্তির উপর অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশের আবেদন!

নিউজ ডেস্ক: রাজ্যের কলেজের আংশিক সময়ের শিক্ষক (পিটিটি), চুক্তিভিত্তিক শিক্ষক (সিডব্লিউটিটি) এবং অতিথি শিক্ষকদের (জিটি) একত্রে ‘স্টেট এডেড কলেজ টিচার’ (স্যাক্ট) স্বীকৃতি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। এরপর, যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতার নিরিখে ওই সমস্ত শিক্ষকদের ভাতা-বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আবারও একটি মামলা হল কলকাতা হাইকোর্টে। এর আগে গবেষকদের একটি সংগঠন মামলা ঠুকেছে আদালতে। এবার বৈশাখী দত্ত-সহ একাধিক পার্টটাইম শিক্ষক হাইকোর্টে আর একটি মামলা ঠুকলেন। বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর বেঞ্চে এই মামলা দায়ের করা হয়েছে। সব মিলিয়ে রাজ্যে ১৩,০০০ এর মত এই রকম শিক্ষক আছেন।

বৈশাখী’র আইনজীবী সুদীপ্ত দাশগুপ্ত বলেন, ‘আংশিক এবং চুক্তিভিত্তিক কলেজ শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধির নামে অবৈধ ভাবে কলেজ গুলির শূন্যপদ পূরণ করা হচ্ছে। দেখা যাচ্ছে এই সমস্ত নিয়োগ হওয়া শিক্ষকদের মধ্যে ইউজিসি নির্ধারিত যোগ্যতাহীন কলেজশিক্ষকের সংখ্যাই বেশি। দীর্ঘদিন যাঁরা কলেজে শিক্ষকতা করছেন তাদের অভিজ্ঞতার কোনও মূল্য দেওয়া হচ্ছে না। বেশ কিছু সুবিধাও কমিয়ে দেওয়া হয়েছে নতুন বিজ্ঞপ্তিতে।’

রাজ্যের বিজ্ঞপ্তি সম্পূর্ণ খারিজ করা এবং মামলা বিচারাধীন থাকা কালে বিজ্ঞপ্তির উপর অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ জারি করার আবেদন করা হয়েছে মামলাকারীদের পক্ষ থেকে। একই সঙ্গে বলা হয়েছে, ইউজিসির নির্ধারিত যোগ্যতা মান থাকা আংশিক ও চুক্তিভিত্তিক কলেজ শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি করতেই পারে রাজ্য। কিন্তু ইউজিসি যোগ্যতা না থাকা ব্যক্তিদের বেতন বৃদ্ধি-সহ একাধিক সুযোগ সুবিধা দিয়ে, রাজ্যে কলেজ সার্ভিস কমিশনের মত পরীক্ষাগুলির প্রয়োজনীয়তা একেবারে শেষ করে দেওয়ার মত হটকারী সিদ্ধান্ত কোনো ভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। সুতরাং অবিলম্বে রাজ্যের দেওয়া বিজ্ঞপ্তির উপর স্থগিতাদেশ দেওয়ার আবেদন করা হয়েছে আদালতে।

Check Also

হেলিয়াগাছী অঃপ্রাঃ বিদ্যালয়ে বিদ্যুতের ব্যবহার ও সচেতনা নিয়ে সম্পন্ন হল বিশেষ শিবির

নিউজ ডেস্ক: আজ আমার বিদ্যালয় দঃ ২৪ পরগনার হেলিয়াগাছী অঃপ্রাঃ তে এক বিশেষ শিবির আয়োজন …

ভারতীয় ডাক বিভাগে গ্রামীণ ডাক সেবক (জিডিএস) পদে ২০২১টি শূন্যপদে নিয়োগ

নিউজ ডেস্ক: ভারতীয় ডাক বিভাগের পশ্চিমবঙ্গ ডাক সার্কেলে গ্রামীণ ডাক সেবক-শাখা পোস্ট মাস্টার (বিপিএম), সহকারী …

এসএসকে-এমএসকে শিক্ষাকেন্দ্রগুলি নিয়ে সরকারের বিশেষ কোনও পরিকল্পনা নেই: শিক্ষামন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: রাজ্যের শিশু ও মাধ্যমিক শিক্ষাকেন্দ্রগুলি (এসএসকে-এমএসকে) নিয়ে সরকারের এই মুহূর্তে বিশেষ কোনও পরিকল্পনা …

বর্ধিত বেতনের বিজ্ঞপ্তিতে অসঙ্গতি, আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কায় প্রাথমিক শিক্ষকরা

নিউজ ডেস্ক: গত ১৩ ডিসেম্বর শিক্ষকদের বর্ধিত বেতনের বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছিল। অপশন ফর্ম পূরণ করার …

প্রকাশিত হল ২০২০ আইপিএলের সময়সূচি, দেখে নিনি কেকেআরের মাঠে নামার সূচি

নিউজ ডেস্ক: প্রকাশিত হল ২০২০ আইপিএলের সময় সূচি। আইপিএলের সূচি প্রকাশ করল ভারতীয় বোর্ড। ২৯ …

শুরু হচ্ছে কলেজের অতিথি অধ্যাপকদের নথি যাচাই এবং ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া!

নিউজ ডেস্ক: অতিথি শিক্ষক, আংশিক সময়ের শিক্ষক এবং চুক্তিভিত্তিক পূর্ণ সময়ের শিক্ষকদের একটি ছাতার তলায় …

বিয়ের পিঁড়িতে এনআরসি বিরোধী পোস্টার, কুর্নিশ জানিয়েছেন সবাই!

নিউজ ডেস্ক: মাঘ মাস বিয়ের মাস। পরিকল্পনা চলছিলো দুই বাড়িতেই। তাড়াতাড়ি দুটো হাত এক করতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.