Breaking News
Home / সাহিত্য / রহস্যময় প্রাচীণ বাড়ি (ক্রয়োদশ পর্ব)

রহস্যময় প্রাচীণ বাড়ি (ক্রয়োদশ পর্ব)

    তোরা যেখান থেকে পারিস নিয়ে আসবি। কোথায় পাবি তা আমি জানি না। আর যদি খালি হাতে আসিস তবে মজা দেখে নিবি। ঠাকুর মশাই বলল কি যে বলছ দাদা। ওদের কি দোষ। একসঙ্গে গিয়েছিল পাহাড়ে উঠতে। ওরা দুজনে উঠে পড়েছে।আনন্দ উঠতে পারে নি। তাই বলে ওদের ঘাড়ে দোষ দেওয়া ঠিক নয়।আর বল না ভায়া। ওরা বেড়াতে এসেছে তাই বলে জঙ্গলের পাহাড়ে উঠতে হবে। কি যে বলেন দাদা। ওদের মন চেয়েছিল তাই গিয়েছিলো। কিন্তু ওসব কথা বাদ দিন। আনন্দকে কিভাবে খুঁজে পাওয়া যায় তাই এখন ভাবতে হবে।

কমল ও সেলিম চলে গেলো। বিলুর প্রেমটা সদ্য জমে উঠছিল। কিন্তু তাও বারোটা বেজে গেলো। এই ঝামেলার মধ্যে তো আর প্রেম করা যাবে না। আর আনন্দকেও এই সময় হারাতে হল। ব্যাটা আমাদের ধোকা দিচ্ছে না তো। কে জানি। সেলিম ও আনন্দ চলে আসলো পাহাড়ের গায়ে হাতে ঠাকুর মশায়ের লাইসেন্স ওয়ালা গাদা বন্দুক নিয়ে।আনন্দ কে আটকে রাখা হয়েছে।

সে এখন নজরবন্দি হয়েছে। কিন্তু সে বহাল তবিয়তে আছে। ভালো ভালো খাবার খাচ্ছে দাচ্ছে, ঘুমাচ্ছে। আনন্দ এমনিতেই খেতে খুব ভালোবাসে। চেহারাখানি কয়েকদিন থাকায় বড় ভালো লাগছে। ঠিক ঠিক টাইমমতো খাবার পাচ্ছে। কোনো অসুবিধে নেই। এদিকে সেলিম ও কমল পাহাড়ের বনে জঙ্গলে খুঁজে খুঁজে অস্থির। চারিদিক খোজা হয়ে গেছে। পাহাড়ে বা কোনো জঙ্গলে নেই। সেলিম ও কমল গাছের তলায় বসে পড়ল। মনের দু:খে কেউ কারো সঙ্গে কথা বলছে না। কারণ আনন্দকে তারা হারিয়েছে। প্রাণ প্রিয় বন্ধু।কি যে হল কি ব্যাপার কিছুই বুঝতে পারছি না। কমল এমন সময় ছোট ছোট পাথর নিয়ে ফেলছে আর মুখ বুঝে মনে মনে নিজেকে দোষী সাব্যস্ত করছে।

কি করবে কোথায় খুঁজবে কিছুই বুঝতে পারছে না। হটাৎ করে এমন সময় ছুড়া পাথর গিয়ে পড়ল একটা গর্তের মুখে। গর্তটি বেশি বড় আকারের হবে না। তবে সাধারণ মানুষের প্রবেশ করা যাবে। কমল, সেলিম তাড়াতাড়ি গর্তের মুখের কাছে যায়।জায়গাটি ছিল পাহাড়ের মধ্যে সমান্তরাল। যেখানে আনন্দ হাটতে চেয়েছিল। কমল ও সেলিমের ভয় হতে থাকে পাহাড়ের গায়ে সমান্তরাল জায়গা এবং তাতে করে বড় গর্ত।প্রথমে গর্তছিল তা বোঝা যাচ্ছিল না কারণ বিভিন্ন গাছগাছালি এবং লতাপাতায় ঢাকা ছিল। সেলিম বলে ভাই কমল নেমে দেখবি গর্তের ভিতর কি আছে। তুই খেপেছিস নাকি। সাপ খোপ থাকলেও থাকতে পারে তো নাকি।কিন্তু দ্যাখ এখানে আনন্দও থাকতে পারে। আর তাছাড়া আমরা গর্তটা। কিসের তা দেখেই চলে আসব।

ধারাবাহিক ভাবে চলবে……

Check Also

জয়জয়কার বাংলার: লন্ডনে দ্বিতীয় সরকারি ভাষার স্বীকৃতি পেল বাংলা

নিউজ ডেস্ক: বিদেশেও বাংলার জয়জয়কার! লন্ডনের সরকারিভাবে দ্বিতীয় ভাষার মর্যাদা পেল বাংলা। বর্তমানে লন্ডনে বসবাসকারী …

বাবাকে বাঁচাতে নিজের লিভার দিয়ে দিচ্ছেন মেয়ে উর্মি আচার্য্য!

নিউজ ডেস্ক: দীর্ঘদিন ধরে লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত বাবা নারায়ন আচার্য্য। অসুস্থ বাবাকে বাঁচাতে নিজের লিভারটাও …

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে দুটি কাজ করার আবেদন পার্শ্ব শিক্ষকদের

নিউজ ডেস্ক: ন্যায্য বেতন এবং নির্দিষ্ট বেতন কাঠামোর দাবিতে সল্টলেকের বিকাশ ভবনের সামনে ধর্ণা এবং …

কি বলবেন আপনি: পর্ন ওয়েবসাইটের ‘‌ট্রেন্ডিং’‌ পেজে হায়দ্রাবাদ কাণ্ডের ধর্ষিতার নাম!

নিউজ ডেস্ক: নির্ভয়ার গনধর্ষণ কাণ্ডের পরও এমন খবর সামনে এসেছিল। আসিফার কথা মনে আছে?‌ ছোট্ট …

হায়দ্রাবাদের মার্ডার ও ধর্ষণের ঘটনায় ধরা পড়ল চার জন, দেশ জুড়ে উঠছে ফাঁসির দাবী

নিউজ ডেস্ক: বৃহস্পতিবার হায়দ্রাবাদের উপকণ্ঠে ২৬ বছর বয়সী ভেটেরিনারি ডাক্তারকে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগে হায়দ্রাবাদ …

রাজস্থানেও বড় জয় কংগ্রেসের, প্রায় মুছে গেল বিজেপি!

নিউজ ডেস্ক: সদ্যই হাতছাড়া হয়েছে মহারাষ্ট্র। এবার রাজস্থানেও বড় ধাক্কা খেল বিজেপি। রাজস্থানের পুরসভা ভোটেও …

বিজেপিকে পথে বসিয়ে ঘরের ছেলে ফিরে গেলেন ঘরে, হাতে পেন্সিল বিজেপির!

নিউজ ডেস্ক: শেষ পর্যন্ত ঘরের ছেলে ঘরেই ফিরে এলেন। বিজেপিকে এক রকম পথে বসিয়েই ঘরে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.