Breaking News
Home / হেড লাইনস / বেতন বঞ্চনার সুরাহা না হলে উচ্চ মাধ্যমিকের খাতা দেখা ও ক্লাস বয়কট করার হুঁশিয়ারি শিক্ষকদের!

বেতন বঞ্চনার সুরাহা না হলে উচ্চ মাধ্যমিকের খাতা দেখা ও ক্লাস বয়কট করার হুঁশিয়ারি শিক্ষকদের!

নিউজ ডেস্ক: তাঁরা বঞ্চিত হচ্ছেন! বেতন বঞ্চনার সুরাহা না হলে এবার বড় পদক্ষেপ নিতে পারেন। এমনই হুঁশিয়ারি দিলেন সল্টলেকে অবস্থান আন্দোলনে বসা কয়েক হাজার গ্র্যাজুয়েট শিক্ষকেরা। তাঁদের ন্যায্য দাবি মানা না হলে উচ্চ মাধ্যমিকের খাতা দেখা ও ক্লাস বয়কট করার মত বড় সিদ্ধান্ত নিতে পারেন শিক্ষকেরা, জানিয়ে দিলেন তাঁরা।

কিন্তু কি দাবি শিক্ষকদের? শিক্ষকদের বক্তব্য অনুযায়ী, তাঁদের বর্তমান বেতনক্রম ৭,১০০ টাকা-৩৭,৬০০ টাকা। গ্রেড পে ৪,১০০ টাকা। কিন্তু সর্বভারতীয় টিজিটি বেতনক্রম অনুযায়ী তাঁদের বেতন হবার কথা ৯০০০ টাকা-৪০,৫০০ টাকা পে স্কেল এবং ৪,৬০০ টাকা গ্রেড পে। ফলে বেতন বঞ্চনার মুখে শিক্ষকেরা।

এই নিয়ে বৃহত্তর গ্র্যাজুয়েট টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিজিটিএ)-এর সাধারণ সম্পাদক সৌরেন ভট্টাচার্য বলেন, রাজ্য জুড়ে ১ লক্ষ ১০ হাজার শিক্ষক ক্ষোভে ফুঁসছেন। বর্তমানে আমাদের সঙ্গে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট শিক্ষকদের বেতনের বৈষম্য ৯,২০০ টাকা। কিন্তু কেন্দ্রীয় স্তরে এই ফারাক মাত্র ২,৭০০ টাকা। আমাদের দাবি, এই বেতন বৈষম্য দূর করে বেতনের ফারাক কমানো হোক।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষামন্ত্রী একাধিকবার এই ব্যাপারে আশ্বাস দিলেও এখনও এ বিষয়ে কোনও উদ্যোগ নেননি। উল্টে হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে ডিভিশন বেঞ্চে গিয়েছে রাজ্য। সরকারের মনোভাব এর মাধ্যমেই ইঙ্গিত পাওয়া যায়। আমাদের ন্যায্য দাবি না মানলে বা ইতিবাচক আশ্বাস না দেওয়া হলে, আমরা উচ্চ মাধ্যমিকের খাতা দেখা এবং ক্লাস নেওয়া বয়কট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

এই নিয়ে গ্র্যাজুয়েট শিক্ষক ললিত রায় বলেন, বাড়তি কোনও স্বীকৃতি ছাড়াই অন্তত ৪০ শতাংশ স্কুলে উচ্চ মাধ্যমিকের ক্লাস নিয়ে থাকেন গ্র্যাজুয়েট শিক্ষকরা। তাঁদেরকে সামনে রেখেই অনেক স্কুলে উচ্চ মাধ্যমিকে নতুন বিষয় চালু বা গোটা উচ্চ মাধ্যমিক শাখা খোলার অনুমতি মেলে। এর ফলে প্রধান শিক্ষকরাও বাড়তি সাম্মানিক পান। কিন্তু বঞ্চিত থেকে যান সেই গ্র্যাজুয়েট শিক্ষকরা। ফলে আন্দোলনে নামতে বাধ্য হয়েছেন শিক্ষিকরা।

Check Also

হেলিয়াগাছী অঃপ্রাঃ বিদ্যালয়ে বিদ্যুতের ব্যবহার ও সচেতনা নিয়ে সম্পন্ন হল বিশেষ শিবির

নিউজ ডেস্ক: আজ আমার বিদ্যালয় দঃ ২৪ পরগনার হেলিয়াগাছী অঃপ্রাঃ তে এক বিশেষ শিবির আয়োজন …

ভারতীয় ডাক বিভাগে গ্রামীণ ডাক সেবক (জিডিএস) পদে ২০২১টি শূন্যপদে নিয়োগ

নিউজ ডেস্ক: ভারতীয় ডাক বিভাগের পশ্চিমবঙ্গ ডাক সার্কেলে গ্রামীণ ডাক সেবক-শাখা পোস্ট মাস্টার (বিপিএম), সহকারী …

এসএসকে-এমএসকে শিক্ষাকেন্দ্রগুলি নিয়ে সরকারের বিশেষ কোনও পরিকল্পনা নেই: শিক্ষামন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: রাজ্যের শিশু ও মাধ্যমিক শিক্ষাকেন্দ্রগুলি (এসএসকে-এমএসকে) নিয়ে সরকারের এই মুহূর্তে বিশেষ কোনও পরিকল্পনা …

বর্ধিত বেতনের বিজ্ঞপ্তিতে অসঙ্গতি, আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কায় প্রাথমিক শিক্ষকরা

নিউজ ডেস্ক: গত ১৩ ডিসেম্বর শিক্ষকদের বর্ধিত বেতনের বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছিল। অপশন ফর্ম পূরণ করার …

প্রকাশিত হল ২০২০ আইপিএলের সময়সূচি, দেখে নিনি কেকেআরের মাঠে নামার সূচি

নিউজ ডেস্ক: প্রকাশিত হল ২০২০ আইপিএলের সময় সূচি। আইপিএলের সূচি প্রকাশ করল ভারতীয় বোর্ড। ২৯ …

শুরু হচ্ছে কলেজের অতিথি অধ্যাপকদের নথি যাচাই এবং ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া!

নিউজ ডেস্ক: অতিথি শিক্ষক, আংশিক সময়ের শিক্ষক এবং চুক্তিভিত্তিক পূর্ণ সময়ের শিক্ষকদের একটি ছাতার তলায় …

বিয়ের পিঁড়িতে এনআরসি বিরোধী পোস্টার, কুর্নিশ জানিয়েছেন সবাই!

নিউজ ডেস্ক: মাঘ মাস বিয়ের মাস। পরিকল্পনা চলছিলো দুই বাড়িতেই। তাড়াতাড়ি দুটো হাত এক করতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.