Breaking News
Home / প্রযুক্তি / বিজ্ঞানের বিশাল অগ্রগতি: দুই মা মিলে জন্ম দিলেন এক সন্তান!

বিজ্ঞানের বিশাল অগ্রগতি: দুই মা মিলে জন্ম দিলেন এক সন্তান!

বিশ্ব বার্তা নিউজ পোর্টাল: মায়ের কোল আলো করে এসেছে সন্তান, সে আর কি এমন ঘটনা! কিন্তু সে যদি শুধু মায়ের একার না হয়? তার ওপর যদি অন্য মায়েরও দাবি থাকে? তখন ঘটনাটি আর সাধারণ থাকে না!

অবাক করার মতই এমন ঘটনা ঘটেছে গ্রিসে। পৃথিবীর ইতিহাসে এই প্রথমবার দুই মায়ের ডিম্বাণু নিয়ে এক সন্তানের জন্ম দিয়েছেন চিকিৎসকেরা। দুই নারীর ডিম্বাণুর সঙ্গে এক পুরুষের শুক্রাণুর মিলন ঘটিয়ে এই বিস্ময়কর সফলতা পেয়েছে গ্রিস ও স্পেনের চিকিৎসকদের একটি দল।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম বিবিসির খবর অনুযায়ী গত ৯ এপ্রিল ওই শিশুর জন্ম হয়েছে । জন্ম নেওয়া শিশুটির ওজন ছিল ২.৯ কেজি। বর্তমানে শিশু ও তার জন্মদাত্রী মা দুজনেই সুস্থ আছেন।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, গ্রিসের ৩২ বছর বয়সী এক নারী অনেক চেষ্টার পরেও মা হতে পারছিলেন না। টেস্টটিউব পদ্ধতিতেও তিনি চার দফায় চেষ্টা করার পরেও সফল হতে পারেননি। ওই নারীর সমস্যা ছিল কোষের মাইটোকন্ড্রিয়ায়। এ ধরনের সমস্যায় মায়ের গর্ভেই সন্তান প্রাণঘাতী ওই মাইটোকন্ড্রিয়াজনিত রোগে আক্রান্ত হয়। মা হতে তাঁকে সহযোগিতা করার জন্য চিকিৎসকরা এক নতুন কৌশল অবলম্বন করেন। প্রথমে মায়ের ডিম্বাণুর নিউক্লিয়াসদাতা নারীর ডিম্বাণুতে স্থাপন করেন। পরে তা বাবার শুক্রাণু দিয়ে নিষিক্ত করা হয়। এরপর নিষিক্ত ভ্রূণটি মায়ের গর্ভে স্থাপন করা হয়।

এই ব্যাবস্থাপনার নেতৃত্বে ছিলেন নুনো কস্টা-বোরহেস। তিনি বলেন, এই প্রক্রিয়ায় জন্ম নেওয়া শিশুর জিনের ৯৯ শতাংশই এসেছে তার মা-বাবা থেকে। ১ শতাংশ জিন এসেছে দাতা নারীর দেহ থেকে।

তবে এই কৌশল নিয়ে বিশ্বজুড়ে এক বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। অনেকেই এই ভাবে জন্ম দেওয়া নিয়ে নৈতিকতার প্রশ্নও তুলেছেন। তাঁদের মতে, এ বিষয় নিয়ে গবেষণা আর হওয়াই উচিত নয়।

Check Also

সাজানো ভণ্ডামি, পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্রের সঙ্গে আপনি বর্বরতা করেছেন, মুখ্যমন্ত্রীকে মুকুল রায়

বেশ কিছুদিন ধরেই রাজ্যের শাসকদল জোর দিয়েছে জন সংযোগ কর্মসূচি। পোশাকি নাম দেওয়া হয়েছে দিদিকে বলো কর্মসূচি। এই কর্মসূচি উপলক্ষেই গত বুধবার দিঘার দত্তপুরে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। সেখানে দীঘর উন্নয়নের জন্য বেশ কিছু প্রকল্প ঘোষণা করেন। এরপর বাড়ি বাড়ি ঢুকে সাধারণ মানুষের অভাব-অভিযোগ শোনেন তিনি। যেতে যেতেই রাস্তার পাশে একটি চায়ের দোকানে ঢুকে নিজে হাতে চা বানান মুখ্যমন্ত্রী। এরপর তা পরিবেশনও করেন। এই ঘটনাকে জীবনের ছোটো ছোটো আনন্দদায়ক মুহূর্ত হিসাবেই অভিহিত করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

পদোন্নতির মাধ্যমে শিক্ষক নেওয়া হলে, আদৌ কি যোগ্য প্রার্থীরা প্রধান শিক্ষক হতে পারবেন? উঠছে প্রশ্ন!

এসএসসির মাধ্যমে সহ শিক্ষক নিয়োগে বারে বারে উঠেছে অভিযোগ। কখনো বা এনসিটির রুলস না মানা আবার কখনো বা যোগ্য প্রার্থীকে বাদ দিয়ে অযোগ্য প্রার্থীকে মেধা তালিকায় জায়গা করে দেওয়া। শুধুই যে সহ শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে এমন অভিযোগ আছে তা নয়, প্রধান শিক্ষক নিয়োগ নিয়েও উঠেছে একাধিক অভিযোগ। এসএসসির বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে আদালতে মামলা দায়ের হয়েছেও প্রচুর। ফলে রাজ্যের স্কুল গুলিতে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ বারেবারে বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে।

এক দেশ, এক পরিবার, এক সন্তান, আইন করে চালু করা উচিত: বিজেপির শরিক নেতা

এক দেশ, এক পরিবার, এক সন্তান, আইন করে চালু করা উচিত

দীঘায় চলবে সি প্লেন, তৈরি হবে পুরীর মত জগন্নাথ দেবের মন্দির: মমতা ব্যানার্জী

দীঘা

সরকারের অনৈতিক সিদ্ধান্তে বিরুদ্ধে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে

সরকারের অনৈতিক সিদ্ধান্তে বিরুদ্ধে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে

অতিথি অধ্যাপকদের স্থায়ীকরণে ইউজিসির নিয়মকে লঙ্ঘন, আদালতের পথে চাকুরী প্রার্থীদের একাংশ!

অতিথি অধ্যাপকদের স্থায়ীকরণে ইউজিসির নিয়মকে লঙ্ঘন, আদালতের পথে চাকুরী প্রার্থীদের একাংশ!

কলেজের অতিথি অধ্যাপকদের ধামাকাদার বেতন বৃদ্ধি

কলেজের অতিথি অধ্যাপকদের ধামাকাদার বেতন বৃদ্ধি