Breaking News
Home / পশ্চিমবঙ্গ / প্রাইভেট টিউশন নিয়ে তীব্র বিবাদ স্কুলে, ২২ জন শিক্ষককে শো-কজ় প্রধান শিক্ষকের!

প্রাইভেট টিউশন নিয়ে তীব্র বিবাদ স্কুলে, ২২ জন শিক্ষককে শো-কজ় প্রধান শিক্ষকের!

নিউজ ডেস্ক: রাজ্যের অনেক শিক্ষক স্কুলে পড়ানো থেকে প্রাইভেট টিউশনকে বেশি গুরুত্ব দেন বলে অভিযোগ উঠছে বারে বারে। এটি পুরোপুরি বন্ধ করার চেষ্টা অনেক বারই করেছে রাজ্য স্কুল শিক্ষা দপ্তর। যদিও তেমন সফল হয়নি। বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা যাতে আর টিউশন পড়াতে না পারেন তার জন্য কড়া আইন এনেছে রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর।

এবার শিক্ষকদের গৃহশিক্ষকতা করা নিয়ে প্রধান শিক্ষকের সঙ্গে তীব্র বিবাদ বেধেছে কৃষ্ণনগর কলেজিয়েট স্কুলের সহ-শিক্ষকদের একাংশের। প্রাইভেট টিউশনি না করার লিখিত বিবৃতি দেওয়া নিয়ে স্কুলের প্রায় সমস্ত শিক্ষকই প্রধান শিক্ষক মনোরঞ্জন বিশ্বাসের বিরুদ্ধে বলে খবর পাওয়া গেছে। রাজ্য শিক্ষা দফতরের নির্দেশ অনুযায়ী কোনও সরকারি বা সরকার পোষিত স্কুলের শিক্ষকেরা প্রাইভেট টিউশন করতে পারবেন না। গত বছরেও এই স্কুলের শিক্ষকরা এই মর্মে লিখিত বিবৃতি দিয়েছিলেন। কিন্তু এ বার আর কেউ লিখিত মুচলেকা দিতে চাইছেন না। ফলে প্রধান শিক্ষক, দিবা বিভাগের ১৭ জন ও প্রাতর্বিভাগের পাঁচ জনকে শো-কজ় করেন। আর তাতেই চরম বিরোধ লেগেছে সহকারী শিক্ষকদের সঙ্গে প্রধান শিক্ষকের।

এই নিয়ে নদিয়া জেলার মাধ্যমিক শিক্ষা পরিদর্শক ব্রজেন্দ্রনাথ মণ্ডল জানান, ‘‘সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী লিখিত বিবৃতি যে নিতেই হবে এমন বাধ্যতামূলক নয়। তবে যেহেতু স্কুলশিক্ষকদের টিউশন করা নিয়ে আমাদের কাছে অভিযোগ আসছে, নানা জায়গায় বিতর্ক হচ্ছে, সেই কারণেই লিখিত বিবৃতি চাওয়া হচ্ছে। অন্য জেলাতেও এটা হচ্ছে। তবে শিক্ষার অধিকার আইন অনুসারে শিক্ষকরা প্রাইভেট টিউশন পড়াতে পারবেন না’’

যদিও কৃষ্ণনগর কলেজিয়েট স্কুলের শিক্ষকদের পাল্টা দাবি, তাঁরা জেলা স্কুল পরিদর্শকের নিয়ন্ত্রণাধীন নন, সরাসরি রাজ্য শিক্ষা দফতরের অধীনস্থ। শিক্ষা দফতর লিখিত বিবৃতি নেওয়ার কোনও বিজ্ঞপ্তি বা নির্দেশিকা দেয়নি। সেই কারণেই এ বছর তাঁরা তা দেননি। এই দাবিকে সমর্থন করে রাজ্যের সরকারি স্কুল শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সৌগত বসু বলেন, ‘‘সরকারি চাকরির শর্তই হল, আমরা অন্য কোনও লাভজনক কাজ করতে পারব না। এর পরে আবার এই মর্মে লিখিত বিবৃতি চাওয়া অপ্রয়োজনীয়। এবং তা না দেওয়ায় শো-কজ় করাও অত্যন্ত নিন্দনীয় কাজ।’’

প্রধান শিক্ষক মনোরঞ্জন বিশ্বাস শুক্রবার বলেন, ‘‘আমি সরকারি নির্দেশিকা মেনেই শিক্ষকদের লিখিত বিবৃতি দিতে বলেছিলাম। গৃহশিক্ষকদের একটি সংগঠনের পক্ষ থেকে কয়েক জন শিক্ষকের নাম দিয়ে জানানো হয়েছিল যে তাঁরা প্রাইভেট টিউশন করেন। আমি তাঁদের বিরুদ্ধে কী পদক্ষেপ করেছি, তা-ও তাঁরা তথ্য জানার অধিকার আইন (আরটিআই) মোতাবেক জানতে চান। সেই মতো খোঁজ নিয়ে যাঁরা গৃহশিক্ষকতা করছেন বলে জানতে পেরেছি, তাঁদেরই শো-কজ় করেছি।” সহকারী প্রধান শিক্ষক জয়ন্ত মণ্ডলের মতে, “প্রধান শিক্ষক পদাধিকার বলে একক ভাবে সিদ্ধান্ত নিতেই পারেন। কিন্তু সকলের সঙ্গে কথা বলে স্কুল পরিচালনা করলে পরিবেশটা স্বাভাবিক থাকে।”

পদাধিকার বলে ওই সরকারি স্কুলের পরিচালন সমিতির সভাপতি নদিয়ার জেলাশাসক বিভু গোয়েল বলেন, “শিক্ষকদের টিউশন করাটা কোনও ভাবেই মানা হবে না। এর আগেও একাধিক বার পরিচালন সমিতির বৈঠকে সমস্যার স্থায়ী সমাধানের কথা বলা হয়েছে। তার পরেও সমস্যা থেকে গিয়েছে। এ বার ফের পরিচালন সমিতির বৈঠক ডেকে কড়া পদক্ষেপ করব।”

এই বিষয়ে গৃহশিক্ষক কল্যাণ সমিতির রাজ্য সম্পাদক দীপঙ্কর দাস বলেন, ‘শিক্ষার অধিকার আইন অনুসারে স্কুল শিক্ষকরা প্রাইভেট টিউশন পড়াতে পারবেন না। তারপরেও বেশ কিছু শিক্ষক অবৈধ ভাবে টিউশন করছেন। অন্যদিকে প্রচুর সংখ্যক বেকার যুবক যুবতীরা বঞ্চিত হচ্ছেন। এই শিক্ষকদের যে কোনো একটা বেছে নিতে হবে, হয় চাকরি, আর নয়তো গৃহশিক্ষকতা।’

এই নিয়ে WBPTWA এর নদীয়া জেলা কমিটি থেকে দাবি করা হয়েছে, ‘আমরা নদীয়া তথা পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত গৃহশিক্ষক শিক্ষিকাদের কাছে প্রতিশ্রুত বদ্ধ যে, স্কুলশিক্ষকদের এই অবৈধ আইন বিরোধী প্রাইভেট টিউশন বন্ধ করবোই করবো। আর যতোদিন তা না করছি ততদিন আমাদের এই বিরামহীন প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। আমরা আশাবাদী আমরা অচিরেই সাফল্য পেতে চলেছি।’

Check Also

স্কুল স্তরে কম্পিউটার শিক্ষার মান উন্নয়নে, কম্পিউটার শিক্ষাকে বিষয়ভিত্তিক করার দাবি আইসিটি শিক্ষকদের

নিউজ ডেস্ক: রাজ্যে আইসিটি শিক্ষকদের বঞ্চনার ইতিহাস বহুদিনের। সরকার অধীনস্থ সংস্থা ওয়েবেল, রাজ্যের বিভিন্ন শিক্ষা …

বিদ্যুৎ কর্মীদের ডিএ ১০%, বাড়ি ভাড়া বাবদ অনুদান ১৬%, ক্ষোভে ফুঁসছেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা

নিউজ ডেস্ক: বর্তমানে রাজ্য সরকারি কর্মীদের ডিএ শূণ্য। ডিএ বৃদ্ধির ব্যাপারে কোনও হেলদোল নেই রাজ্যের। …

উত্তরপত্র মূল্যায়নে বা নম্বর গুনতে ভুল করলেই বিভাগীয় তদন্তের মুখে পড়তে হবে শিক্ষকদের: কড়া পর্ষদ

নিউজ ডেস্ক: প্রত্যেক বছরই মাধ্যমিকের উত্তরপত্র মূল্যায়নে ভুলের অভিযোগ নিয়ে জেরবার হচ্ছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। হাজার …

পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল সহ পাকড়াও এক পার্শ্বশিক্ষক, অভিযোগের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন!

নিউজ ডেস্ক: প্রশ্ন আউট ঠেকাতে ও অবাঞ্চিত ঘটনা রুখতে মোবাইল ফোন নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢোকা পুরোপুরি …

২৫% হারে পেনশন বাড়ছে রাজ্যের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের, জারি বিজ্ঞপ্তি!

নিউজ ডেস্ক: আগেই রাজ্যের কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের ক্ষেত্রে পেনশন বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছিল। এবার …

প্রয়াত যাদবপুরের প্রাক্তন সাংসদ ও বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ নেতাজী পরিবারের সদস্যা শ্রীমতি কৃষ্ণা বসু

নিউজ ডেস্ক: চলে গেলেন প্রাক্তন যাদবপুরের প্রাক্তন সাংসদ ও বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ নেতাজী পরিবারের সদস্যা শ্রীমতি …

অবশেষে সংশোধিত পেনশন সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি রাজ্যের, বড় স্বস্তি অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের

নিউজ ডেস্ক: আগেই রাজ্যের কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের ক্ষেত্রে পেনশন বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছিল। এবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.