Breaking News
Home / কোলকাতা / দয়া করে ঘরে বসে থাকবেন না, চলে আসুন, আগামী চার-পাঁচ দিন হয়তো আমাদের জন্য আনবে আলো, কাতর আবেদন আন্দোলনকারী পার্শ্ব শিক্ষকদের!

দয়া করে ঘরে বসে থাকবেন না, চলে আসুন, আগামী চার-পাঁচ দিন হয়তো আমাদের জন্য আনবে আলো, কাতর আবেদন আন্দোলনকারী পার্শ্ব শিক্ষকদের!

নিউজ ডেস্ক: ন্যায্য বেতন এবং নির্দিষ্ট বেতন কাঠামোরদাবিতে সল্টলেকের বিকাশ ভবনের সামনে ধর্ণা এবং অনশন আন্দোলনে করছেন রাজ্যের পার্শ্ব শিক্ষকদের এক বড় অংশ। একই সঙ্গে চলছে স্কুলে স্কুলে ক্লাস বয়কট। ধর্ণা আন্দোলন আজ দশম দিনে পড়ল। অনশন পড়ল ষষ্ঠ দিনে। ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকজন অনশনকারী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে জানিয়েছে পার্শ্ব শিক্ষক ঐক্যমঞ্চ। তাঁদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে। দিনে দিনে আরও বেশি সংখ্যক মানুষ আসছেন এই আন্দোলনে যোগ দিতে।

রাজ্যে মোট পার্শ্ব শিক্ষকের সংখ্যা ৪৮ হাজারের মত। এর মধ্যে বড় অংশ এখনও অনশন স্থলে আসেননি। তাঁদেরকে অনশন স্থলে আসার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছেন আন্দোলনকারী পার্শ্ব শিক্ষকেরা। তাঁরা বলছেন, ‘স্যার, ম্যাডামরা দয়া করে ঘরে বসে থাকবেন না। যারা এসে ছিলেন কিন্তু চলে গিয়েছেন তারাও আর ঘরে থাকবেন না। আগামী চার-পাঁচ দিন আমাদের জন্য খুব গুরুত্ব পূর্ণ সময়। এখন চাই বড় জমায়েত। এই চার-পাঁচ দিনই হয়তো আমাদের জন্য সারা জীবন আলো নিয়ে আসতে পারে। আপনাদের অনুরোধ করা হচ্ছে দয়া করে এখানে চলে আসুন।’

যদিও শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় গতকালই পার্শ্ব শিক্ষকদের অনশন আন্দোলন তুলে নেওয়ার অনুরোধ করেছেন। সাংবাদিক বৈঠক করে শিক্ষামন্ত্রীবলেন, ‘‘শিক্ষকদের সামগ্রিক বিষয়গুলি আমরা বিবেচনায় এনেছি৷ ৪০ থেকে ৫০ শতাংশ টাকা আমরা বাড়িয়েছি ২০১৮ সালে৷ তার আগেও আমরা ২০১৪-১৫ সালে তাঁদের ৬০ বছর পর্যন্ত চাকরির মেয়াদ ও তিন বছর অন্তর ৫ শতাংশ বেতন বৃদ্ধির বিষয়টিও আমরা করেছি৷ বৃত্তিমূলক শিক্ষকদের ক্ষেত্রেও তিন বছরে ৫ শতাংশ শহরে বেতন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি৷ এরপর ওঁরা আমাদের কাছে আসে৷ ইপিএফ আওতায় আনা যায় কি না, আমরা তা বিবেচনা করেছি৷ স্বাস্থ্যসাথী আওতায় আনা যায় কি না, আমরা সেটাও দিয়েছি৷ ওদের কিছু ছুটির দাবি ছিল, তার ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে৷ ওরা ঠিকমতো ক্লাসের সুযোগ-সুবিধা পেত না৷ সেটা আমরা ব্যবস্থা করে দিয়েছি। আমরা এই সমস্ত শিক্ষকদের প্রতি যথেষ্ট সহানুভূতিশীল। আমি অনুরোধ করবো শিক্ষকেরা আন্দোলন তুলে নিক। রাজ্য সঠিক সময় ঠিকই ব্যবস্থা নেবে৷’’

Check Also

খাদ্য সুরক্ষাকার্ডে বাবার নাম উল্লেখ করা হয়েছে KKR NIGHT RIDERS, কোথাও বা বাল ব্রহ্মচারী, ক্ষুব্ধ গ্রাহকরা

নিউজ ডেস্ক: এর আগে পদবি, বয়স এসবের গোলমাল তো হতই৷ ভুল দেখা যেত ঠিকানাতেও৷ কিন্তু …

কাজকর্মে খুশি নয় শিক্ষা দপ্তর, সরে যেতে হল এসএসসির চেয়ারম্যানকে

নিউজ ডেস্ক: অপসারিত হলেন পশ্চিমবঙ্গ স্কুল সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান সৌমিত্র সরকার। হাওড়ার জয়পুর কলেজের অধ্যক্ষ …

স্কুল শিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন পড়ানোর দাবিতে এসডিও’র দ্বারস্থ বিভিন্ন স্কুলের ছাত্র/ ছাত্রী সহ অভিভাবকেরা

নিউজ ডেস্ক: বেশ কিছুদিন ধরেই শিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন বন্ধ করার দাবিতে আন্দোলন চালাচ্ছে বেশ কয়েকটি …

MURRAY LOWE

অস্ট্রেলিয়া: মৃতের মধ্যেই জীবন, ধ্বংসের মধ্যেই নতুন প্রাণ, রহস্যময় পৃথিবী সত্যিই অতুলনীয়ও

নিউজ ডেস্ক: কয়েক মাস ধরে নজিরবিহীন দাবানলে ছারখার হয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়ার এক বড় অংশ। অন্তত …

ভোটার কার্ডের ভুল কি অনিচ্ছাকৃত না চক্রান্তের স্বীকার?

জিল্লুর রহমান: আজ ভোটার কার্ড সংশোধন এর উদ্দেশ্যে বিডিওতে যায়, সংশোধনের অনলাইন ফর্ম ও কিছু …

‘শোষক আসবে, শোষক যাবে, কাগজ আমরা দেখাব না।’ রীতিমত ভাইরাল নেটদুনিয়ায়

নিউজ ডেস্ক: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন এবং এনআরসি নিয়ে দেশজুড়ে চলছে আন্দলোন। এর বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে …

‘দিলীপদা দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো কথা বলেছেন’ বাবুল সুপ্রিয়

নিউজ ডেস্ক: আবার কোন্দল দেখা দিল গেরুয়া শিবিরে। এবার বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে কটাক্ষ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.