Breaking News
Home / ধর্ম / দোল পূর্ণিমা: এ যেন রঙের উৎসব

দোল পূর্ণিমা: এ যেন রঙের উৎসব

বিশ্ব বার্তা নিউজ পোর্টাল: দোল পূর্ণিমা হল রঙের উত্সব যা হিন্দু ক্যালেন্ডার অনুযায়ী, প্রতিবছর ফেব্রুয়ারী বা মার্চ মাসে পূর্ণিমাতে ফাগুন পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে প্রতিবছর পালিত হয়। এই দিনে মানুষ সমস্ত বিভেদ ভুলে, নতুন রঙে এবং নতুন ভাবে তাদের সম্পর্ক শক্তিশালী করে তোলে। এই উৎসব মানুষের মধ্যে ভালবাসা এবং আত্বিক যোগাযোগ বাড়ায়। প্রজন্মের পর প্রজন্ম ধরে এই উত্সব পালিত হচ্ছে এবং এর গুরুত্ব দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

দোলযাত্রা প্রধানত একটি হিন্দু বৈষ্ণব উৎসব। হোলি উৎসবটির সঙ্গে দোলযাত্রা সম্পর্কযুক্ত। এই উৎসবের অপর নাম হল বসন্তোৎসব। বৈষ্ণব ধর্ম বিশ্বাস অনুযায়ী, ফাল্গুনী পূর্ণিমা বা দোলপূর্ণিমার দিন বৃন্দাবনে শ্রীকৃষ্ণ আবির বা গুলাল নিয়ে রাধিকা ও অন্যান্য গোপীগণের সঙ্গে রং খেলায় মেতেছিলেন। সেই ঘটনা মনে রেখেই দোল খেলার উৎপত্তি হয়। এই দিন সকালে রাধা ও কৃষ্ণের বিগ্রহ আবির ও গুলালে স্নাত করে দোলায় চড়িয়ে কীর্তনগান সহকারে শোভাযাত্রায় বের করা হয়। এরপর ভক্তেরা আবির নিয়ে একে অপরকে রং মাখিয়ে দেন। দোল উৎসবের এই ফাল্গুনী পূর্ণিমাকে দোলপূর্ণিমা বলা হয়, আবার একে গৌরপূর্ণিমা নামেও অভিহিত করা হয়।

এই দিন সকাল থেকেই নারীপুরুষ নির্বিশেষে সকলে আবির ও বিভিন্ন প্রকার রং নিয়ে খেলায় মত্ত হয়ে ওঠে। শান্তিনিকেতনে বিশেষ নৃত্যগীতের মাধ্যমে বসন্তোৎসবের সূচনা করা হয়, যেটা বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সময়কাল থেকেই চলে আসছে। দোলের আগের দিন খড়, কাঠ, বাঁশ ইত্যাদি জ্বালিয়ে এক বিশেষ বহ্ন্যুৎসবের আয়োজন করা হয়, একে হোলিকাদহন বা নেড়াপোড়া বলা হয়। উত্তর ভারতে হোলি উৎসবটি বাংলার দোলযাত্রার পরদিন পালিত হয়।

এটি যেহেতু রঙের উৎসব, তাই এই উৎসবের প্রাণকেন্দ্র আবির। এই দিন সকাল সকাল আট থেকে আশি সকলে একে অপরকে আবির মাখাতে রাস্তায় নেমে পড়ে। আগে মূলত আবির দিয়ে খেলা হত কিন্তু এখন আবিরের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে রঙ। দোলের সাত দিন আগে থেকেই দোকানদাররা রঙের পসরা নিয়ে বসে।

এই দিনটি শান্তিনিকেতনে বিশেষভাবে পালিত হয়। আগে শান্তিনিকেতনে দোল পূর্ণিমায় দোল উৎসব পালন হত না বরং বসন্তকে আহ্বান জানানোর জন্য সঙ্গীত, নৃত্য অনুষ্ঠান, নাট্য অভিনয়কে কেন্দ্র করে বিশেষ অনুষ্ঠান করা হত। এখন এর সঙ্গে রং খেলা যুক্ত হয়ে, বসন্ত উৎসবটি আরো জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এখন এটি দোল বসন্ত উৎসব হিসাবে পরিচিত লাভ করেছে। এই দিন সকালে সকলে সেখানে রাস্তায় প্রভাত ফেরি বার করে আবির খেলতে খেলতে ” ওরে গৃহবাসী খোল দ্বার খোল লাগলো যে দোল” গানটি গায়। এবং নৃত্যের তালে তালে একে অপরকে রং মাখিয়ে দেয়। এই দিনটি শান্তিনিকেতনে এক অদ্ভুত পরিবেশের সৃষ্টি হয়। সন্ধ্যেবেলায় দোল পূর্ণিমাকে ঘিরে গৌরপ্রাঙ্গণে চলে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নাটকের যাত্রা পালা।

কলকাতার মল্লিক বাড়িতেও দোল উৎসব পালন করার বিশেষ রীতি আছে। সেখানে পুরোনো রীতি মেনে আজও শ্রীমতী ও গোপীচাঁদ বল্লভের এবং রাধাকান্তের পুজো করা হয়। যদিও আগের জৌলুস হারিয়েছে। তবে কিছুদিন আগেও মল্লিক পরিবারে এই দিনটি বিশেষ আড়ম্বরের সঙ্গে পালিত হত। 

Check Also

বড় ধাক্কা বিজেপির, মহারাষ্ট্রে সরকার গড়বে তারাই জানিয়ে দিল শিবসেনা!

নিউজ ডেস্ক: মহারাষ্ট্রে সরকার গড়বে তাঁরাই, জানিয়ে দিল শিবসেনা। ফলে মারাঠা ভূমিতে খুব বড় ধাক্কা …

বাসন্তী-রঙা শাড়ি পরে, মাথায় ঘোমটা দিয়ে, দেবী-বরণ করেন পুরুষেরা, ২২৩ বছর ধরে চলছে পরম্পরা!

নিউজ ডেস্ক: রীতি মেনে এখানে সাতবার প্রতিমাকে প্রদক্ষিণ করা হয়। কারও হাতে জলের পাত্র। কারও …

দিতে হবে না কোনো লিখিত পরীক্ষা, কেবল পদোন্নতির মাধ্যমেই হবে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ!

নিউজ ডেস্ক: আর নয় লিখিত পরীক্ষা, এবার নির্দিষ্ট কাজের অভিজ্ঞতা থাকলে পদোন্নতির মাধ্যমেই হওয়া যাবে …

শিক্ষক নিয়োগ মামলায় গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

নিউজ ডেস্ক: অবশেষে শারীর শিক্ষা ও কর্ম শিক্ষা বিষয়ের শিক্ষক পদের চাকরি প্রার্থীদের জন্য কিছুটা …

বিশ্ব বার্তা

‘আমি আমার ২০ বছরে পর্যাপ্ত জীবন দেখে ফেলেছি, আর দেখার কিছু অবশিষ্ট নেই’, বলেই তিন তলা থেকে লাফ!

নিউজ ডেস্ক: ইন্ডিয়াান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি হায়দ্রাবাদের (আইআইটি-এইচ) তৃতীয় বর্ষের ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষার্থী হায়দরাবাদের উপকণ্ঠের কান্দি …

দুই দুইটি স্বর্ণপদক পেলেন কলকাতার অমর গুপ্ত

বিশ্ব বার্তা: নাম অমর গুপ্ত, একটা অতি সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারে তাঁর জন্ম। বাড়ি কলকাতার উল্টোডাঙ্গা। …

পরীক্ষা নেওয়া হোক অনলাইনে, দেওয়া হোক OMR SHEET, আগে সমাধান করা হোক আপারের নিয়োগে, বড় দাবি হবু শিক্ষকদের

নিউজ ডেস্ক: এসএসসির নিয়মে আমূল পরিবর্তন করতে চলেছে রাজ্য সরকার। আবেদন প্রক্রিয়া থেকে পরীক্ষা ব্যবস্থা …