Breaking News
Home / হেড লাইনস / দুই হাত ছাড়াই কঠিন চ্যালেঞ্জ পার করে ফাল্গুনী আজ অফিসার, এ এক অনন্য লড়াই!

দুই হাত ছাড়াই কঠিন চ্যালেঞ্জ পার করে ফাল্গুনী আজ অফিসার, এ এক অনন্য লড়াই!

নিউজ ডেস্ক: তখন দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়তেন তিনি। হঠাৎ জীবনে নেমে বিশাল এক ধাক্কা। সময়টা ২০০২ সাল। বন্ধুদের সঙ্গে পাশের বাড়িতে খেলার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে তার হাতের কনুই পর্যন্ত পুড়ে যায়। দেশীয় চিকিৎসা ভালো না হওয়ায় নিয়ে যাওয়া হয় কলকাতায়। ভর্তি করা হয় কলকাতা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে।

কথা হচ্ছে, ফাল্গুনী সাহার। গ্রামের বাড়ি বাংলাদেশের পটুয়াখালীর গলাচিপায়। হাত দুটি নেই বললেই চলে। কিন্তু তাতে একটুও দমে যাননি তিনি। জীবনের অনেক কঠিন পরীক্ষা পার করে ফাল্গুনী আজ সফল। ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে স্নাতকোত্তর পর্বে পড়াশুনা করছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে। এখন একটি বেসরকারি কোম্পানির হিউম্যান রিসোর্স অফিসার পদে কর্মরত ফাল্গুনী।

কিন্তু সফলতা এত সহজে আসেনি তাঁর। কলকাতা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ফাল্গুনীকে যখন ভর্তি করা হয় তত দিনে তার হাতে পঁচন ধরেছে। ডাক্তারবাবু বলেন, বড্ড দেরি হয়ে গিয়েছে। এভাবে পঁচতে থাকলে ক্যান্সারও হয়ে যেতে পারে। ফলে হাত দুটোকে আর রাখা যাবে না। ফলে একেবারে কনুই থেকে কেটে ফেলা হলো ফাল্গুনীর হাত দুটো। হাতের ঘা শুকাতে লেগে যায় চার মাস।

আত্বীয় স্বজন আফসোস করে বলত, আর পড়াশোনা হবে না ফাল্গুনীর। তবে দমে যাওয়ার পাত্রী নয় ফাল্গুনী। কদিন সাহস করে কামড়ে ধরলেন কলম। দুই হাতের কনুইয়ের মাঝখানে কলম রেখে চেষ্টা করলেন লেখার। চলল প্র্যাকটিস। পেলেন সফলতাও।

এই ব্যাপারে ফাল্গুনী বলেন, ‘প্রথম দিকে ভীষণ কষ্ট হতো। এলোমেলো হয়ে যেত লেখা। কলম চেপে ধরতে ধরতে একসময় হাতে হয়ে গিয়েছিল ইনফেকশনও। এই ভাবে লিখতে বারণ করেছিলেন ডাক্তারও। কিন্তু আমি হার মানবো কেন? অদম্য ইচ্ছাশক্তির জোরে একসময় ঠিকই আয়ত্তে চলে আসে লেখা।’

পরের বছর তৃতীয় শ্রেণিতে ভর্তি হন ফাল্গুনী। গলাচিপা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পঞ্চম শ্রেণিতে বৃত্তিও পান। গলাচিপা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়ে তাক লাগিয়ে দেন তিনি।

ঢাকার ট্রাস্ট কলেজের অধ্যক্ষ বশির আহমেদ ফাল্গুনীর কথা জেনে তাকে ঢাকায় এনে ট্রাস্ট কলেজে ভর্তি করিয়ে দেন। সেখান থেকে এইচএসসিতে মানবিকে জিপিএ-৫ পেয়ে আবারও নিজেকে প্রমাণ করলেন ফাল্গুনী।

তারপর ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষে ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন তিনি। অনার্সে সিজিপিএ ৩.৫০ পান। বর্তমানে তিনি ওখান থেকেই মাস্টার্স করছেন।

কিন্তু ফাল্গুনী জীবন তো এত সহজে চলার নয়! জীবন মানেই যে পরীক্ষা ফাল্গুনীর কাছে। ফাল্গুনীরা চার বোন, ফাল্গুনী তৃতীয়। বাবা জগদীশচন্দ্র সাহা, মা ভারতী সাহা। একটা ছোটখাটো একটি মুদি দোকান ছিলো তার বাবার। আবার দুর্ভাগ্য নেমে আসে ফাল্গুনীর জীবনে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার কয়েক দিন পর বাবাকে হারান ফাল্গুনী। তখন মিষ্টির বাক্স বিক্রি করে কোনো মতে সংসার চালাতেন মা ভারতী সাহা।

চরম অর্থকষ্টে দিন কাটে ফাল্গুনীর। ঠিক তখন যোগাযোগ হয় ‘মানুষ মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন’-এর প্রতিষ্ঠাতা আমেরিকা প্রবাসী চন্দ্র নাথের সঙ্গে। সেখান থেকে বৃত্তির ব্যবস্থা হলো ফাল্গুনীর। এ বিষয়ে ফাল্গুনী বলেন, ‘মানুষ মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন থেকে প্রতি মাসে যা বৃত্তি পেতাম সেটা দিয়েই খরচ চলে যেত। সত্যি বলতে কী, ওই সময় বৃত্তি না পেলে হয়তো আমার পড়াশোনাটা আর হতো না।’

ফাল্গুনী আরও বলেন, পড়াশোনার সময় বৃত্তির টাকায় চলছিল। মাস্টার্স শেষে কী হবে তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলাম। এর মধ্যেই গত ১৭ অক্টোবর হটাৎ একটি সুখবর পাই আমি। একটি বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাকে হিউম্যান রিসোর্স আমাকে অফিসার হিসেবে নিয়োগ দেয়া।

জীবনের বড় বড় বিপর্যয় পেরিয়ে সফলতা পাওয়া ফাল্গুনী সাহা বলেন, ‘আমি জীবনে অনেক কষ্ট করে এই অবস্থানে এসেছি। অদম্য ইচ্ছাশক্তির জোরে এখানে এসেছি। আমার মা খুব অসুস্থ। বসে বসে কাজ করার ফলে মায়ের হাড় ক্ষয়ে গেছে। কিছুদিন আগে ব্রেইন স্ট্রোকও হয়েছে। ভালো ডাক্তার দেখাবো মাকে। ছোট বোন এখন অনার্সে পড়ছে। তাকেও সহযোগিতা করতে চাই আমি।’ 

Check Also

এমফিল/পিএইচডিতে ভর্তির নতুন বিজ্ঞপ্তি জারি করল উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়

নিউজ ডেস্ক: পিএইচডি করতে ইচ্ছুক প্রার্থীদের জন্য ভালো খবর। উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় এমফিল / পিএইচডি প্রোগ্রাম …

উন্নাও কেসে গ্রেফতার করা হল পাঁচ জনকে, ধৃতরা সকলেই প্রভাবশালী!

নিউজ ডেস্ক: আগুনে ঝলসানো উন্নাওয়ের দগ্ধ ধর্ষিতা তরুণী মারা গেলেন গতকাল রাতে। সেই তরুণী, যিনি …

জয়জয়কার বাংলার: লন্ডনে দ্বিতীয় সরকারি ভাষার স্বীকৃতি পেল বাংলা

নিউজ ডেস্ক: বিদেশেও বাংলার জয়জয়কার! লন্ডনের সরকারিভাবে দ্বিতীয় ভাষার মর্যাদা পেল বাংলা। বর্তমানে লন্ডনে বসবাসকারী …

বাবাকে বাঁচাতে নিজের লিভার দিয়ে দিচ্ছেন মেয়ে উর্মি আচার্য্য!

নিউজ ডেস্ক: দীর্ঘদিন ধরে লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত বাবা নারায়ন আচার্য্য। অসুস্থ বাবাকে বাঁচাতে নিজের লিভারটাও …

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে দুটি কাজ করার আবেদন পার্শ্ব শিক্ষকদের

নিউজ ডেস্ক: ন্যায্য বেতন এবং নির্দিষ্ট বেতন কাঠামোর দাবিতে সল্টলেকের বিকাশ ভবনের সামনে ধর্ণা এবং …

কি বলবেন আপনি: পর্ন ওয়েবসাইটের ‘‌ট্রেন্ডিং’‌ পেজে হায়দ্রাবাদ কাণ্ডের ধর্ষিতার নাম!

নিউজ ডেস্ক: নির্ভয়ার গনধর্ষণ কাণ্ডের পরও এমন খবর সামনে এসেছিল। আসিফার কথা মনে আছে?‌ ছোট্ট …

হায়দ্রাবাদের মার্ডার ও ধর্ষণের ঘটনায় ধরা পড়ল চার জন, দেশ জুড়ে উঠছে ফাঁসির দাবী

নিউজ ডেস্ক: বৃহস্পতিবার হায়দ্রাবাদের উপকণ্ঠে ২৬ বছর বয়সী ভেটেরিনারি ডাক্তারকে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগে হায়দ্রাবাদ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.