Breaking News
Home / সাহিত্য / “চেতনার গভীরে” লিখেছেন- সুরঞ্জনা

“চেতনার গভীরে” লিখেছেন- সুরঞ্জনা

বিশ্ব বার্তা: সে দিন সন্ধ্যাবেলায় কলেজ থেকে বাড়ি ফিরে আমি খুব ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলাম। একটা বালিশ মাথায় দিয়ে বিছানায় গা হেলিয়ে দিয়ে কখন যে গভীর চিন্তায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়লাম স্মরনেই নেই। যখন টের পেলাম তখন আমার মনে হল যেন আমি সুদূর পাশ্চাত্যে কত রজনী অতিবাহিত করে ফিরলাম। কেন আমার এই কথা মনে হলো? আমার অবচেতনায় হঠাৎই ভেসে উঠল আমার প্রেমিক রিচার্ডের কথা। প্রতিদিনের মতই সেদিনও অপরাহ্নে উভয়েই লন্ডনের জু-গার্ডেনে সাক্ষাৎ করলাম। বসে রয়েছি একে অপরের দিকে নিষ্পলক চোখে তাকিয়ে। কারো মুখে কোনো কথা নেই, এই ভাবে অনেক্ষন বসে রইলাম দুজনেই। কথা বলে অর্থাৎ অহেতুক শব্দ সৃষ্টি করে নীরব সান্নিধ্যের আমেজটুকু হয়তো কেউ নষ্ট করতে চাইছিলাম না। তাই বোধ হয় রিচার্ড আমাকে আলিঙ্গন করে আমাকে তার কাছে টেনে নিল। আমি এই ধরনের সান্নিধ্যে অভ্যস্ত নই। কিন্তু দেহ মনে যে শিহরণ যে জাগেনি তা নয়। কত কথাই তো গান হয়ে যায়, কত গান, কত কবিতাই তো মনে আলোড়ন সৃষ্টি করে। মনে হয় যেন এ সান্নিধ্যের যেন শেষ না হয়।

“কসম তুমকো মেরে শর কি
মেরে পেহলু সে না সারকো।
আগার সারকো তো ইউ সারকো
কতল কারদো মেরে শার কো।”

আমার মাথার দিব্যি তুমি আমার বাহুবন্ধন থেকে সরে যেও না। নেহাৎ যদি সরে যেতেই চাও, তবে তোমার প্রতি আমার ভালোবাসায় সিক্ত এই মনকে আমার এই রক্ত মাংসের শরীর থেকে বের করে দিয়ে চলে যাও।

খেয়াল করিনি আমরা স্বগতোক্তি বোধহয় নৈঃশব্দ ভঙ্গ করে ছিলো। সচকিত হয়ে রিচার্ড তাই মৃদুস্বরে প্রশ্ন করল “এলিন, তুমি কি কিছু বলছ?” আমি বললাম “প্রেমিক-প্রেমিকাদের কথোপকথন সম্পর্কে বিখ্যাত প্রেমের কবির উক্তিটা মনে মনে বলছিলাম, সেটারই অংশ বিশেষ তুমি শুনে ফেলেছ।” এই স্বগোক্তির সারমর্ম কিছুটা রিচার্ড বোঝার পর খুব খুশি হল। এরপর রিচার্ডের কথাবার্তা স্বাভাবিক হয়ে এল, অভিমানের গন্ডি ভেঙে বললো “গতকাল তুমি আসতে পারবেনা কেন?” আমি কারনটা তাকে জানালাম। তার উত্তরে রিচার্ড বললো এ নেহাতই অনিচছাকৃত। হটাৎ আমি বললাম রাত্রি অনেক হলো, এবার উঠা যাক। ঠিক করলাম পরের দিন সিনেমা দেখতে যাবো। প্রতিশ্রুত সময়ে আমি জু-গার্ডেনে পৌছালাম। ওর দিকে তাকিয়ে চোখ ফেরাতে পারলাম না। অপূর্ব লাগছিলো ওকে, মনে হচ্ছিল আর কিছুই নয় শুধু ওর দিকে চেয়ে বসে থাকি।

“জনম জনম হম রূপ নেহারলু
নয়ন না তিরাপিত ভেল।”

তাইত বলি জনম ভোর যদি আমি ওর দিকে তাকিয়ে থাকি, নয়ন তৃপ্তি পাবেনা ওকে দেখে। যাইহোক সময় অনেক হয়ে গিয়েছিল, আমরা রওনা দিলাম। কিন্তু আচমকা মার ডাকে জেগে গিয়ে ভাবলাম, আমি একি দেখলাম। আমি বুঝলাম নিশ্চয় নিদ্রায় বিভোর হয়ে স্বপ্ন দেখছিলাম, ভেবে খুবই আনন্দ পেলাম। বাস্তবে যা আমি এখনও ওরে উঠিনি, স্বপ্নে তার আগাম বার্তা পেলাম।

Check Also

অর্থনীতির হাত ধরে আবার বাঙালির বিশ্বজয়!

বিশ্ব বার্তা: আবার বাঙালির বিশ্বজয়। অমর্ত্য সেনের পর আবার অর্থনীতিতে নোবেল জয় বাঙালির। “বৈশ্বিক দারিদ্র্য …

গান্ধী কীভাবে আত্মহত্যা করেছিলেন, অবাক প্রশ্ন গুজরাটের একটি স্কুলে!

আহমেদাবাদ: আমরা সবাই জানি মহাত্মা গান্ধী কে হত্যা করা হয়েছিল। তাঁকে হত্যা করেছিল নাথুরাম গডসে। …

কি কারণে আত্মহত্যা করতে হল মেধাবী গণিতের গবেষককে? আছে কি সিএসসির গণিতের মেধা তালিকার কোনো সম্পর্ক!

বেলদা: গতকাল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের এক গবেষক ছাত্রের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃত …

এসএসসি: কমছে অ্যাকাডেমিক নম্বর, হতে পারে সেটের মত পরীক্ষা,চলছে আপারের অভিযোগ খতিয়ে দেখা!

কোলকাতা: দুর্নীতি নিয়ে বারে বারে অভিযোগ উঠছে এসএসসির বিরুদ্ধে। ফলে বিতর্ক বন্ধ করতে এবার নিয়োগ …

আপনি যতটা মনে করছেন তার থেকেও শোচনীয় অবস্থা ভারতের বর্তমান আর্থিক অবস্থার: রাজন

বিশ্ব বার্তা: বর্তমানে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা নিয়ে অনেক লেখা লিখি হচ্ছে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায়। রাজকোষের …

জিয়াগঞ্জ ও ফালাকাটার ঘটনার প্রতিবাদে ১৭ ই অক্টোবর, দুপুর ১২ টায় বিশাল প্রতিবাদ মিছিলের ডাক দিল শিক্ষক শিক্ষাকর্মী শিক্ষানুরাগী ঐক্য মঞ্চ

বিশ্ব বার্তা: দশমীর দিন জিয়াগঞ্জের লেবুবাগানে নিজের বাড়িতেই শিক্ষক বন্ধুপ্রকাশ পাল খুন হন তাঁর স্ত্রী …

রহস্যময় প্রাচীণ বাড়ি -এন.কে.মণ্ডল (চতুর্দশ পর্ব)

          না না আমি নামতে চাই না তুই নামলে নামতে পারিস। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *