Breaking News
Home / ভারত বর্ষ / কোথায় ‘আচ্ছে দিন’ ভারতীয় অর্থনীতির এখন ‘বুরে দিন’ আর্থিক বৃদ্ধির হার নেমে গেল সাড়ে ৪ শতাংশে

কোথায় ‘আচ্ছে দিন’ ভারতীয় অর্থনীতির এখন ‘বুরে দিন’ আর্থিক বৃদ্ধির হার নেমে গেল সাড়ে ৪ শতাংশে

নিউজ ডেস্ক: গোটা দেশকে আচ্ছে দিনের স্বপ্ন দেখিয়ে ক্ষমতায় এসেছিল বিজেপি। কিন্তু আচ্ছে দিন তো দূরের কথা, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মেয়াদে অর্থনীতির যে বুরে দিন অব্যহত থাকবে তা আর কেই বা জানত!

আজ কেন্দ্রীয় সরকার আর্থিক বৃদ্ধি সংক্রান্ত যে পরিসংখ্যান পেশ করেছে তাতে স্বাভাবিক ভাবেই চরম হতাশা জাহির করেছেন অর্থনীতিকদের বড় অংশ। চলতি আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিক তথা জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত মোট অভ্যন্তরীণ উৎপাদন তথা জিডিপি’র যা তথ্য প্রকাশ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার তাতে দেখা যাচ্ছে দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে আর্থিক বৃদ্ধির হার দাঁড়িয়েছে মাত্র সাড়ে ৪ শতাংশে। যা গত ৬ বছরের মধ্যে সবথেকে খারাপ অবস্থা।

চলতি আর্থিক বছরের প্রথম তিন মাসে আর্থিক বৃদ্ধির হার ছিল মাত্র ৫ শতাংশ। তা নিয়ে যথেষ্ট আশঙ্কা প্রকাশ করেছিল শিল্পমহল। ক্রমশ মন্দা গ্রাস করে নিচ্ছে কিনা ভারতের অর্থনীতিকে তা নিয়েই বিস্তর আলোচনা চলছিল। এবার বিকাশ দর আরও কমে গেল।

এর আগে অর্থনৈতিক অবস্থা সামাল দিতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছিল মোদি সরকার পরিস্থিতিতে সরকার। কমানো হয়েছিল কর্পোরেট করের হার, একাধিক রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ককে মিশিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সেইসব পদক্ষেপ যে কোনো কাজে লাগেনি তা দেখাই যাচ্ছে।

যদিও আন্তর্জাতিক মন্দার স্বীকার ভারত, বলে বারবার দাবি করছে কেন্দ্রীয় সরকার। তবে প্রথম তিন মাসের থেকেও দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে বৃদ্ধির হার কমে যাওয়া যে ভারতীয় অর্থিনীতির জন্য অশনি সংকেত তা বলাই যায়।

Check Also

কেন্দ্রে কংগ্রেস ক্ষমতায় আসলেই বাতিল হবে সিএএ ও এনআরসি: প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

নিউজ ডেস্ক: এনআরসি এবং সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে আন্দলন করছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল সহ …

বিজ্ঞানে দেশের প্রথম মহিলা ডক্টরেট, অর্গানিক কেমিস্ট্রিতে পিএচডি করেছিলেন ১৯৪৪ সালেই, চেনেন কি এই কিংবদন্তি বাঙালিকে?

নিউজ ডেস্ক: সালটা ছিল ১৯৪৪, দেশ তখনও স্বাধীন হয়নি। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অরগ্যানিক কেমিস্ট্রি নিয়ে …

অসাধারণ! দীর্ঘ ১১ বছর ধরে প্রতিদিন গলা সমান জল পেরিয়ে স্কুলে পৌঁছান ওড়িশার বিনোদিনী

নিউজ ডেস্ক: সমাজ গড়ার কারিগর হল শিক্ষক। পড়ুয়াদের ভবিষ্যৎ গড়ার দায়িত্ব হাতে থাকে শিক্ষিক–শিক্ষিকাদের উপর। …

সিএএ অসাংবিধানিক, সুপ্রিম কোর্টের উচিত এখনই তা বাতিল করা: অমর্ত সেন

নিউজ ডেস্ক: সুপ্রিম কোর্টের উচিত এখনই সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) বাতিল করে দেওয়া বললেন বিশিষ্ট …

আন্দোলনকারীদের প্রতি সংহতি প্রকাশে জেএনইউ পৌঁছেছেন দীপিকা পাডুকোন

নিউজ ডেস্ক: অভিনেতা দীপিকা পাডুকোন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাম্প্রতিক সহিংসতার প্রতিবাদকারী শিক্ষার্থীদের সাথে সংহতি জানাতে জওহরলাল …

Breaking News: ঐতিহাসিক রায় সুপ্রিমকোর্টের, শিক্ষক নিয়োগ করবে কমিশন!

নিউজ ডেস্ক: সুপ্রিমকোর্টে ঐতিহাসিক রায় হল আজ। সম্পন্ন হল দীর্ঘদিনের আইনি লড়াই। মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন …

Breaking news: আক্রান্ত জেএনইউ ছাত্র সংসদ সভাপতি ঐশী ঘোষ, মাথা ফাটল তাঁর!

নিউজ ডেস্ক: আবার আক্রান্ত শিক্ষাঙ্গন। জামিয়ার পরে জেএনইউ তে। এবার আক্রান্ত হলেন খোদ জেএনইউ ছাত্র …

Leave a Reply

Your email address will not be published.