Breaking News
Home / ভারত বর্ষ / কিভাবে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করবেন? জানুন পাসপোর্টের আবেদন সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য

কিভাবে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করবেন? জানুন পাসপোর্টের আবেদন সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য

বিশ্ব বার্তা: পাসপোর্ট হ’ল একটি ভ্রমণের দলিল, সাধারণত একটি দেশ জারি করে যা মূলত আন্তর্জাতিক ভ্রমণের উদ্দেশ্যে কোনো ব্যক্তির পরিচয় এবং জাতীয়তা প্রমাণ করে।

স্ট্যান্ডার্ড পাসপোর্টগুলিতে ব্যক্তির নাম, জন্মের তারিখ, জন্ম স্থান, ফটোগ্রাফ, স্বাক্ষর এবং অন্যান্য সনাক্তকারী তথ্য থাকে।

■ কিন্তু কিভাবে আবেদন করবেন পাসপোর্টের জন্য?

কোনও ব্যক্তি যখন পাসপোর্টের জন্য আবেদন করেন, তখন আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস বা পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্রগুলিতে (পিএসকে) একটি অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুক করা প্রয়োজন।

এটি পাসপোর্ট সেবা অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে লগইন করে, পাসপোর্টের আবেদন ফর্মটি পূরণ করে এবং প্রয়োজনীয় ফি প্রদানের মাধ্যমে করা যেতে পারে।

একবার অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুক হয়ে গেলে, আবেদনকারীকে অবশ্যই এআরএন রসিদটির প্রিন্ট আউট সঙ্গে নিতে হবে এবং পাসপোর্টের আবেদন প্রক্রিয়ার জন্য নির্ধারিত অ্যাপয়েন্টমেন্ট স্থানে যেতে হবে।

■ পাসপোর্টের জন্য আবেদন করার পদ্ধতি

প্রথমেই passportindia.gov.in ওয়েবাসাইটে ভিজিট করতে হবে। সেখানে অনলাইনে ফর্ম ফিল-আপ করতে পারেন। আবার আবেদনপত্র ডাউনলোড করে ধীরেসুস্থে ফিল-আপ করে পাঠাতে পারেন। অনেক ভাবেই আপনি আবেদন করতে পারেন। যেটাতে আপনি সড়গর, সেটাতেই আপনি আবেদন করুণ।

১. ই-ফর্ম জমা দেওয়ার মাধ্যমে পাসপোর্টের জন্য আবেদন

●ই-ফর্ম জমা দেওয়ার মাধ্যমে পাসপোর্টের নতুন বা পুনরায় ইস্যু করার জন্য, ব্যবহারকারীদের পাসপোর্ট সেবা পোর্টালে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।
●রেজিস্ট্রশনের পরে, পাসপোর্ট সেবা পোর্টালে লগইন করুন।
●পাসপোর্টের নতুন বা পুনরায় ইস্যুর জন্য ই-ফর্মটি ডাউনলোড করুন।
●ডাউনলোড করা ই-ফর্মটি পূরণ করুন এবং Validate & Save button টি ক্লিক করুন। এটি একটি এক্সএমএল ফাইল তৈরি করবে যা পরে সিস্টেমে আপলোড করার জন্য প্রয়োজন।
●এক্সএমএল ফাইল আপলোড ই-ফর্মের মাধ্যমে আপলোড করুন। এই মুহূর্তে পিডিএফ ফর্মটি আপলোড করবেন না কারণ কেবলমাত্র এক্সএমএল ফাইলই সিস্টেম গ্রহণ করে।
●পাসপোর্টের নতুন বা পুনর্বিবেচনার জন্য ফর্মটি আপলোড করার পরে, পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্রের (পিএসকে) অ্যাপয়েন্টমেন্টের সময় নির্ধারণের জন্য “বেতন এবং তফসিল অ্যাপয়েন্টমেন্ট” লিঙ্কটি ক্লিক করুন।
●পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্র (পিএসকে) অবস্থান অনুসন্ধান করুন এবং আপনার পিএসকে নির্বাচন করুন।
●নির্বাচিত পিএসকে অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুকিংয়ের পরে, আপনি ক্রেডিট / ডেবিট কার্ড (মাস্টারকার্ড এবং ভিসা), ইন্টারনেট ব্যাংকিং (স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া (এসবিআই) এবং কেবলমাত্র এসোসিয়েট ব্যাংক) বা এসবিআই ব্যাংক চালানের মাধ্যমে একটি অনলাইন পেমেন্ট করতে পারবেন।
●অনলাইন ফি ক্যালকুলেটরের মাধ্যমে আপনি পাসপোর্ট পরিষেবাদির জন্য ফি দেখে নিতে পারেন
ব্যবহারকারীরা অ্যাপ্লিকেশন রেফারেন্স নম্বর (এআরএন) বা অ্যাপয়েন্টমেন্ট নম্বরযুক্ত অ্যাপ্লিকেশন রশিদ প্রিন্ট করে নিতে পারেন।
●পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্রে (পিএসকে) যান, যেখানে অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুক করা হয়েছে। সঙ্গে করে জন্ম তারিখের প্রমাণ, ছবি সহ পরিচয় প্রমাণ, আবাসিক প্রমাণ এবং জাতীয়তার প্রমাণের অরিজিনাল ডকুমেন্টস নিয়ে যান।

২. অনলাইনে ফর্ম জমা দেওয়ার মাধ্যমে পাসপোর্টের জন্য আবেদন

●অনলাইনে ফর্ম জমা দেওয়ার মাধ্যমে পাসপোর্টের নতুন বা পুনরায় আবেদন করার জন্য, আবেদন কারীকে পাসপোর্ট সেবা পোর্টালে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।
●রেজিস্ট্রেশনের পরে, পাসপোর্ট সেবা পোর্টালে লগইন করুন
●Apply for Fresh Passport or Reissue লিঙ্কে ক্লিক করুন।
●একটি ফর্ম ওপেন হবে। ফর্মটি সঠিক ভাবে পূরণ করে সাবমিট করুণ। তারপর আর একটি লিঙ্কে জন্ম তারিখের প্রমাণ, ছবি সহ পরিচয় প্রমাণ, আবাসিক প্রমাণ এবং জাতীয়তার প্রমাণ পত্র স্ক্যান করে আপলোড করুন।
●পাসপোর্টের নতুন বা পুনর্বিবেচনার জন্য ফর্ম সাবমিট করার পরে, পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্রের (পিএসকে) অ্যাপয়েন্টমেন্টের সময় নির্ধারণের জন্য ” Pay and Schedule Appointment” লিঙ্কটি ক্লিক করুন।
কাছের পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্রের (পিএসকে) অবস্থান অনুসন্ধান করুন এবং আপনার পিএসকে নির্বাচন করুন।
●নির্বাচিত পিএসকে অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুকিংয়ের পরে, আপনি ক্রেডিট / ডেবিট কার্ড (মাস্টারকার্ড এবং ভিসা), ইন্টারনেট ব্যাংকিং (স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া (এসবিআই) এবং কেবলমাত্র এসোসিয়েট ব্যাংক) বা এসবিআই ব্যাংক চালানের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় অনলাইন পেমেন্ট করুন।
●অনলাইন ফি ক্যালকুলেটরের মাধ্যমে আপনি পাসপোর্ট পরিষেবাদির জন্য ফি হিসাব করতে পারেন।
●অবশ্যই অ্যাপ্লিকেশন রেফারেন্স নম্বর (এআরএন) বা অ্যাপয়েন্টমেন্ট নম্বরযুক্ত অ্যাপ্লিকেশন রশিদ প্রিন্ট করে নেবেন।
●পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্রে (পিএসকে) যান, যেখানে অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুক করা হয়েছে। সঙ্গে করে জন্ম তারিখের প্রমাণ, ছবি সহ পরিচয় প্রমাণ, আবাসিক প্রমাণ এবং জাতীয়তার প্রমাণের অরিজিনাল ডকুমেন্টস নিয়ে যান।

৩. ব্যক্তিগতভাবে পাসপোর্টের জন্য আবেদন

●ব্যক্তিগতভাবে পাসপোর্টের নতুন বা পুনর্বিবেচনার আবেদনের জন্য ফর্ম প্রিন্ট করতে হবে। সহায়ক ওয়েবসাইট যা আবেদনপত্র ডাউনলোড করতে পাসপোর্ট সেবা পোর্টালে উপলব্ধ সেখানে প্রিন্ট অ্যাপ্লিকেশন ফর্মটি ক্লিক করুণ। এরপর আবেদনপত্রটি ডাউনলোড করুণ। ডাউনলোড করা ফর্মটি স্ট্যান্ডার্ড A4 আকারের পেপারে প্রিন্ট করে নেবেন।
●এছাড়া আপনি জেলা পাসপোর্ট সেল (ডিপিসি) থেকে ১০ টাকায় নতুন পাসপোর্ট বা পাসপোর্ট পুনর্বিবেচনার জন্য ফর্মও সংগ্রহ করতে পারেন।
●সহায়ক কাগজপত্র সহ পূরণকৃত আবেদন ফর্ম এবং স্ব-সত্যায়িত ফটোকপি (জন্ম তারিখের প্রমাণ, ছবি সহ পরিচয় প্রমাণ, আবাসিক প্রমাণ এবং জাতীয়তার প্রমাণ) জেলা পাসপোর্ট সেল (ডিপিসি) কাউন্টারে জমা দিন।
●ডিপিসি কাউন্টারে অফিসিয়াল আবেদন ফর্ম, ছবি এবং নথিপত্র যাচাই করবে। একবার সেগুলি সফলভাবে যাচাই করা হয়ে গেলে ডিমান্ড ড্রাফ্ট (ডিডি) আকারে ফি প্রদান করুন।
●ডিমান্ড ড্রাফ্ট (ডিডি) এর মধ্যে আবেদনকারীর নাম, জন্মের তারিখ এবং ডিমান্ড ড্রাফ্টের পিছনে লেখা আবেদনপত্র জমা দেওয়ার তারিখ থাকতে হবে।
●অনলাইন ফি ক্যালকুলেটরের মাধ্যমে আপনি পাসপোর্ট পরিষেবাদির জন্য ফি হিসাব করে নিতে পারেন।
●ফি জমা দেওয়ার পরে রশিদ সংগ্রহ করুন যাতে একটি ফাইল নম্বর থাকবে।
●ফাইলের স্থিতি ট্র্যাক করার জন্য এই ফাইল নম্বরটি পরে ব্যবহার করা যাবে।

৪. তৎকালে পাসপোর্টের জন্য আবেদন

খুব তাড়াতাড়ি পাসপোর্ট পেতে হলে তৎকালে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করতে হবে। আধার কার্ড বা আধার কার্ডের আবেদন করা হয়েছে এমন তথ্যপ্রমাণ দিতে হবে। সঙ্গে ‘তাঁর বিরুদ্ধে কোনও ফৌজদারি মামলা নেই’— আবেদনকারীকে এমন স্বঘোষিত নথিও (অ্যানেক্সচার ই) জমা দিতে হয়। এ ছাড়া ঠিকানা, বয়স এবং শিক্ষাগত যোগ্যতা সংক্রান্ত যে নথিপত্র জমা করতে হবে।

অবিলম্বে আবেদনকারীকে বিদেশে যেতে হবে, এমন কোনও আমন্ত্রণপত্র বা নথিও এর আগে তৎকাল আবেদনের সময়ে চাওয়া হত। এখন এটা ততটা গুরুত্তপূর্ন নয়। এখন তৎকাল পাসপোর্টের আবেদন করার তিনটি কাজের দিনের মধ্যে পাসপোর্ট পাঠিয়ে দেওয়া হয় আবেদনকারীর ঠিকানায়।

তাড়াতাড়ি পাসপোর্ট পেতে হলে অনলাইনেই তৎকাল পাসপোর্টের জন্য আবেদন করতে হবে। সাত দিনের মধ্যে পেতে হলে খরচ ৫ হাজার টাকা আর ১৪ দিনের মধ্যে পেতে চাইলে খরচ ৪ হাজার টাকা।

৫. মোবাইল পাসপোর্ট সেবা

বিদেশমন্ত্রক মোবাইল অ্যাপ এমপাসপোর্ট সেবা ওয়েবসাইট চালু করেছে যা স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জন্য মোবাইলে পাসপোর্ট সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য সরবরাহ করার জন্য একটি নতুন উইন্ডোতে খোলে।

এমপাসপোর্ট সেবা নাগরিকদের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে যারা পাসপোর্ট আবেদন অন্যান্য সম্পর্কিত তথ্যে জানতে আগ্রহী। এই অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে আপনি পাসপোর্টের জন্য আবেদন করতে পারেন। এছাড়া পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্রগুলির অবস্থান, ফিজ, আবেদনের স্থিতি, যোগাযোগের তথ্য এবং অন্যান্য সাধারণ তথ্য হিসাবে সুনির্দিষ্ট বিবরণ এখান থেকে পাবেন।

পাসপোর্ট সম্পর্কিত আরও বিস্তারিত তথ্যের জন্য আপনি পাসপোর্ট সেবার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটিতে ভিজিট করতে পারেন।

Check Also

আর ফ্রিতে নয়, এবার ভুটানে ঢুকলেই গুনতে হবে দিন প্রতি ১২০০ টাকা!

নিউজ ডেস্ক: আর ফ্রিতে নয়! এবার ভুটানে ঢুকলেই গুনতে হবে নোট। এতদিন ভারতীয় পাসপোর্ট নিয়ে ভুটানে …

কেন্দ্রীয় সরকারি চাকরিতে বিপুল শূন্যপদ, নিয়োগ চলবে জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: দিনে দিনে দেশে শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা বেড়েই চলছে। যদিও বড় রকমের শূন্যপদে নিয়োগের …

আর ১৮ বছরে বিয়ে নয়, মহিলাদের বিয়ের নূন্যতম বয়স বাড়াতে চলেছে মোদি সরকার!

নিউজ ডেস্ক: এখন ভারতে মেয়েদের বিয়ের নূন্যতম বয়স ১৮ বছর। সেটা খুব শীঘ্রই বেড়ে যেতে …

ইনকাম ট্যাক্সে দুটো অপশন! পুরাতনে ছাড় আছে, নতুনে নেই কিন্তু ট্যাক্স শতাংশ কম: বসে পড়ুন হিসাবে

নিউজ ডেস্ক: আজ শুক্রবার বাজেট ২০২০ পেশ করলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন৷ এবছরের বাজেটের দিকে তাকিয়ে …

ইনকাম ট্যাক্সে ছাড়ে বড় ঘোষণা মোদি সরকারের, দেখে নিন হিসাব!

নিউজ ডেস্ক: আজ শুক্রবার বাজেট ২০২০ পেশ করলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন৷ এবছরের বাজেটের দিকে তাকিয়ে …

ফেসবুক জুড়ে ভুয়ো অ্যাকাউন্টের রমরমা, আইটি সেলের অ্যাকাউন্টের হিসাবেও অন্য দলকে দশ গোল বিজেপির!

নিউজ ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে রয়েছে ফেক নিউজের রমরমা। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলো নিজেদের রাজনৈতিক সুবিধার …

কার্গিল যুদ্ধে দেশের হয়ে লড়ে সানাউল্লাহ বিদেশী, বাবা ভারতে ফেলেছিল বোমা ছেলে আদনান পদ্মশ্রী’!

নিউজ ডেস্ক: প্রজাতন্ত্র দিবসে দেশের চতুর্থ সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা ‘পদ্মশ্রী’ পেতে যাচ্ছেন জন্মসূত্রে পাকিস্তানি ভারতীয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.