Breaking News
Home / হেড লাইনস / এসএসসিকে পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ আদালতের, মামলার পরবর্তী শুনানি ৬ ফেব্রুয়ারি

এসএসসিকে পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ আদালতের, মামলার পরবর্তী শুনানি ৬ ফেব্রুয়ারি

নিউজ ডেস্ক: ঠিক ভাবে মানা হয়নি এনসিটিই গাইডলাইন ও হাইকোর্টের নির্দেশ। এছাড়া অভিযোগ, ‘কম্বাইনড মেরিট লিস্ট’ অনুযায়ী প্রার্থীদের নিয়োগ করা হয়নি। ফলে ২০১৪ সালে মামলা করা হয়েছিল। সেই মামলার শুনানিতে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা স্কুল সার্ভিস কমিশনের প্রতি পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ অন্তর্বর্তী নির্দেশ জারি করলেন। এই মামলার উপরেই প্রায় ৪০ হাজার শিক্ষকের ভবিষ্যৎ নির্ভর করছে।

এসএসসিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, নথির পরিমাণ যতই বিপুল হোক, নির্দেশগুলো যথাযত ভাবে পালন করতে হবে। নির্দেশগুলি যথাক্রমে-১. যখন চাকরির বিজ্ঞাপন বের হয়েছিল, তখন সব বিষয় মিলিয়ে মোট শূন্যপদ কত ছিল? ২. ওই সময় পর্যন্ত বিষয়ভিত্তিক প্রকৃত শূন্যপদ কত ছিল? ৩. পার্সোনালিটি টেস্টে উত্তীর্ণ সমস্ত প্রার্থীর মেধা তালিকা কী ছিল? ৪. চূড়ান্ত এবং প্রকৃত প্যানেল কী ছিল? ৫. এসএসসি যাদের নিয়গপত্র দিয়েছিল, তাদের মেধা অনুযায়ী ক্রমতালিকা কেমন ছিল? বিষয়গত, এলাকাগত, মিডিয়াম অব ইন্সট্রাকশন-ওয়াইজ বা ভাষাগত, সংরক্ষণগত এবং লিঙ্গভিত্তিক বিভাগে। ইংরেজি, ভূগোল এবং বাংলা ভাষার শিক্ষক হিসেবে কারা পাশ এবং কারা অনার্স উত্তীর্ণ ছিলেন, সেই হিসাবও পেশ করতে বলা হয়েছে। আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি এই মামলার পরবর্তী শুনানি।

মামলাকারীদের তরফে অন্যমত আইনজীবী সুব্রত মুখোপাধ্যায় আদালতে দাবি করেন, তানিয়া ঘোষের মামলায় সুপ্রিম কোর্ট স্পষ্ট জানিয়েছিল, এসএসসিতে সফলদের মধ্যে থেকে আগে বিএড উত্তীর্ণদের নিয়ে প্যানেল বানিয়ে নিয়োগ করতে হবে। এরপরেও যদি শূন্যপদ থাকে, তবে বিএড ডিগ্রিহীনদের নিয়োগ করতে পারবে কমিশন। কিন্তু, সেই নির্দেশ মানা হয়নি। এরপর সওয়াল-জবাব অনুযায়ী আদালত উপরের পাঁচটি অন্তর্বর্তী নির্দেশ জারি করে।

Check Also

পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল সহ পাকড়াও এক পার্শ্বশিক্ষক, অভিযোগের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন!

নিউজ ডেস্ক: প্রশ্ন আউট ঠেকাতে ও অবাঞ্চিত ঘটনা রুখতে মোবাইল ফোন নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢোকা পুরোপুরি …

প্রশ্ন ফাঁস করলে বা মোবাইল নিয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে ধরা পড়লে আজীবন বহিষ্কার পরীক্ষার্থীকে!

নিউজ ডেস্ক: প্রশ্ন ফাঁস নিয়ে বারে বারে অস্বস্তিতে পড়েছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। আগামী ১২ মার্চ থেকে …

ইসরোতে চাকরির বড় সুযোগ, উচ্চ মাধ্যমিক পাস থাকলেই করা যাবে আবেদন

নিউজ ডেস্ক: বড় শূন্যপদ পূরণ করতে চলেছে ভারতীয় মহাকাশ বিজ্ঞানের পীঠস্থান দ্য ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ …

হেলিয়াগাছী অঃপ্রাঃ বিদ্যালয়ে বিদ্যুতের ব্যবহার ও সচেতনা নিয়ে সম্পন্ন হল বিশেষ শিবির

নিউজ ডেস্ক: আজ আমার বিদ্যালয় দঃ ২৪ পরগনার হেলিয়াগাছী অঃপ্রাঃ তে এক বিশেষ শিবির আয়োজন …

ভারতীয় ডাক বিভাগে গ্রামীণ ডাক সেবক (জিডিএস) পদে ২০২১টি শূন্যপদে নিয়োগ

নিউজ ডেস্ক: ভারতীয় ডাক বিভাগের পশ্চিমবঙ্গ ডাক সার্কেলে গ্রামীণ ডাক সেবক-শাখা পোস্ট মাস্টার (বিপিএম), সহকারী …

এসএসকে-এমএসকে শিক্ষাকেন্দ্রগুলি নিয়ে সরকারের বিশেষ কোনও পরিকল্পনা নেই: শিক্ষামন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: রাজ্যের শিশু ও মাধ্যমিক শিক্ষাকেন্দ্রগুলি (এসএসকে-এমএসকে) নিয়ে সরকারের এই মুহূর্তে বিশেষ কোনও পরিকল্পনা …

বর্ধিত বেতনের বিজ্ঞপ্তিতে অসঙ্গতি, আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কায় প্রাথমিক শিক্ষকরা

নিউজ ডেস্ক: গত ১৩ ডিসেম্বর শিক্ষকদের বর্ধিত বেতনের বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছিল। অপশন ফর্ম পূরণ করার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.