Breaking News
Home / চাকরির খবর / এনটিএ ইউজিসি নেট 2019-20: নেট পরীক্ষার খুঁটিনাটি

এনটিএ ইউজিসি নেট 2019-20: নেট পরীক্ষার খুঁটিনাটি

বিশ্ব বার্তা নিউজ পোর্টাল: ইউনিভার্সিটি গ্রান্টস কমিশনের অধীন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে লেকচারার ও জুনিয়ার রির্সাচ ফেলোশিপের যোগ্যতামান নির্ধারণের জন্য প্রার্থী বাছাই পরীক্ষা, জাতীয় যোগ্যতা পরীক্ষা (নেট) নেয় জাতীয় পরীক্ষা সংস্থা বা এনটিএ (NTA)। সারা দেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা 91 টি নির্বাচিত শহরে 81 টি বিষয়ে নেট পরীক্ষা পরিচালনা করে এনটিএ। 

ইউজিসি নেট পরীক্ষার প্রয়োজনীয় যোগ্যতা:

1. শিক্ষাগত যোগ্যতা

জেনারেল প্রার্থীদের জন্য সর্বনিম্ন 55% এবং এসসি / এসটি / ওবিসি / শারীরিক ও দৃষ্টিশক্তিহীন প্রার্থীদের জন্য সর্বনিম্ন 50% নাম্বার থাকতে হবে।

পিএইচডি ডিগ্রীধারী, যিনি 19 সেপ্টেম্বর 1991 এর আগে মাস্টার্স ডিগ্রী পাস করেছেন, সর্বনিম্ন 50% নম্বর থাকলে, তিনি আবেদনের যোগ্য।

যারা এই বছরে ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা দেবেন, তাদেরও উপরের যোগ্যতা থাকলে নেট পরীক্ষায় আবেদন করতে পারবেন।

ইউজিসি নেট যোগ্যতা মানদণ্ড অনুসারে প্রার্থীদের অবশ্যই সেই বিষয়গুলি বেছে নিতে হবে যা তাদের পিজি ডিগ্রি বিষয়ের সঙ্গে সম্পর্কিত।

2. বয়স গত যোগ্যতা

• জুনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপ (জেআর এফ): 1 লা জুন, হিসাবে 30 বছরের কম হতে হবে। এসসি / এসটি / ওবিসি / PWD এবং মহিলা প্রার্থীদের পাঁচ বছরের বয়সের ছাড় আছে।

• সহকারী অধ্যাপক: সহকারী অধ্যাপকের জন্য আবেদনের জন্য কোনও বয়সের সীমা নেই।

পরীক্ষার প্যাটার্ন হাইলাইটস:

এনটিএ ইউজিসি নেট দুটি ফেজে সম্পন্ন হবে। পরীক্ষা অনলাইন মোডে অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার সময় 3 ঘণ্টা এবং কোনো পরিস্থিতিতে অতিরিক্ত সময় দেওয়া হয় না।

পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার আগে প্রার্থীদের সিলেবাস সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণ থাকা উচিত। পরীক্ষাটিতে থাকে 2 টি পেপার। মোট 300 নম্বরের পরীক্ষা। ইউজিসি নেট পেপার-1 হল সাধারণ বিষয় এবং পেপার-2 হল বিষয় ভিত্তিক।

ইউজিসি নেট পেপার-1: এটি সবার জন্য সাধারণ বিষয়। এটি প্রার্থীর সাধারণ সচেতনতা, বোধগম্যতা, বিবিধ চিন্তাভাবনা এবং যুক্তি দক্ষতার পরীক্ষা করার জন্য নেওয়া হয়। এছাড়া পরীক্ষার্থীর পাঠদান এবং গবেষণা করার ক্ষমতা যাচাইও করে নেওয়া হয় এর মাধ্যমে।

ইউজিসি নেট পেপার-2: পেপার-2 বিষয় ভিত্তিক হয়। প্রার্থী যে বিষয়ে নেট পরীক্ষা দিতে চান, সেই নির্বাচিত বিষয়ের উপর ভিত্তি করে প্রশ্ন করা হয়।

ইউজিসি নেট পরীক্ষায় কোনো নেগেটিভ নাম্বার নেই।

বৈশিষ্টবর্ণনা
পরীক্ষার ধরণঅনলাইন মোড
পরীক্ষার ফরম্যাটএমসিকিউ
পরীক্ষার সময়পেপার 1: 60 মিনিট
পেপার 2: 120 মিনিট
পরীক্ষার সময়সীমাপ্রথম ফেজ সকাল 9.30 am থেকে 12.30 pm এবং দ্বিতীয় ফেজ 2.30 pm থেকে বিকাল 5.30 pm
নম্বরপেপার 1: 100
পেপার 2: 200
পরীক্ষার উদ্দেশ্যইউজিসির অধীন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে লেকচারার ও জুনিয়ার রির্সাচ ফেলোশিপের যোগ্যতামান নির্ধারণ
অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এবং ইমেলhttps://ntanet.nic.in/ntanetcms/public/home.aspx
[email protected]

 

সিলেবাস:

পেপার-1

Unit-1: Teaching Aptitude
Unit-2: Research Aptitude
Unit-3: Comprehension
Unit-4: Communication
Unit-5: Mathematical Reasoning and Aptitude

Unit-6: Logical Reasoning
Unit-7: Data Interpretation
Unit-8: Information and Communication Technology (ICT)
Unit-9: People, Development and Environment
Unit-10: Higher Education System

পেপার-2

পেপার-2 এর বিস্তারিত সিলেবাস জানতে এখানে ক্লিক করুন।

 

এনটিএ ইউজিসি নেট মেরিট লিস্ট:

জুনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপ (জেআরএফ-নেট) এবং লেকচারশিপ (এলএস-নেট) এর জন্য যোগ্য প্রার্থীদের জন্য দুটি পৃথক মেরিট লিস্ট তৈরি করা হয়।

মেরিট লিস্টে প্রার্থীর রোল নম্বর, রাঙ্ক এবং প্রাপ্ত নম্বর দিয়ে দেওয়া হয়।

মেধা তালিকার প্রস্তুতি এন্ট্রান্স পরীক্ষায় প্রার্থীদের প্রাপ্ত নম্বরের উপর ভিত্তি করে তৈরী করা হয়।

যোগ্যতা মানদণ্ড পূরণ করলে জেআরএফের জন্য যোগ্য প্রার্থীরা লেকচারশিপের জন্যও যোগ্য বলে বিবেচিত হন।

লেকচারশিপের জন্য যোগ্য প্রার্থীরা, জুনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপ হিসাবে যোগ্যতা অর্জন করবেন। তবে তারা নিয়মিত জেআরএফ-নেট ফেলোশিপের যোগ্য হবেন না।

এনটিএ ইউজিসি নেট মেরিট লিস্ট প্রস্তুতি:

প্রথম ধাপ

সহকারী অধ্যাপক বা জেআরএফের বিবেচনা করার জন্য জেনারেল বিভাগের প্রার্থীদের কমপক্ষে 40% (পেপার-1+ পেপার-2) এবং সংরক্ষিত বিভাগের প্রার্থীদের (এসসি, এসটি, ওবিসি, PWD, ট্রান্সজেন্ডার) কমপক্ষে 35% পেপার-1+ পেপার-2) সমান নম্বর পেতে হবে।

দ্বিতীয় ধাপ

সহকারী অধ্যাপকের যোগ্যতা অর্জনকারী প্রার্থীর সংখ্যা উভয় পেপারে উপস্থিত মোট পরীক্ষার্থীর 6%) এর সমান হবে। একইভাবে, জেআরএফ-এর জন্য যোগ্য প্রার্থীদের সংখ্যা উভয় পেপারে উপস্থিত মোট প্রার্থীর 1% (প্রায়) এর সমান হবে।

তৃতীয় ধাপ

সংরক্ষণ নীতি অনুসারে মোট স্লটগুলি বিভিন্ন বিভাগে বরাদ্দ করা হবে।

যে 81 টি বিষয়ে ইউজিসি নেট পরীক্ষা নেওয়া হয়, সেগুলো হল: 

Check Also

সাজানো ভণ্ডামি, পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্রের সঙ্গে আপনি বর্বরতা করেছেন, মুখ্যমন্ত্রীকে মুকুল রায়

বেশ কিছুদিন ধরেই রাজ্যের শাসকদল জোর দিয়েছে জন সংযোগ কর্মসূচি। পোশাকি নাম দেওয়া হয়েছে দিদিকে বলো কর্মসূচি। এই কর্মসূচি উপলক্ষেই গত বুধবার দিঘার দত্তপুরে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। সেখানে দীঘর উন্নয়নের জন্য বেশ কিছু প্রকল্প ঘোষণা করেন। এরপর বাড়ি বাড়ি ঢুকে সাধারণ মানুষের অভাব-অভিযোগ শোনেন তিনি। যেতে যেতেই রাস্তার পাশে একটি চায়ের দোকানে ঢুকে নিজে হাতে চা বানান মুখ্যমন্ত্রী। এরপর তা পরিবেশনও করেন। এই ঘটনাকে জীবনের ছোটো ছোটো আনন্দদায়ক মুহূর্ত হিসাবেই অভিহিত করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

পদোন্নতির মাধ্যমে শিক্ষক নেওয়া হলে, আদৌ কি যোগ্য প্রার্থীরা প্রধান শিক্ষক হতে পারবেন? উঠছে প্রশ্ন!

এসএসসির মাধ্যমে সহ শিক্ষক নিয়োগে বারে বারে উঠেছে অভিযোগ। কখনো বা এনসিটির রুলস না মানা আবার কখনো বা যোগ্য প্রার্থীকে বাদ দিয়ে অযোগ্য প্রার্থীকে মেধা তালিকায় জায়গা করে দেওয়া। শুধুই যে সহ শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে এমন অভিযোগ আছে তা নয়, প্রধান শিক্ষক নিয়োগ নিয়েও উঠেছে একাধিক অভিযোগ। এসএসসির বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে আদালতে মামলা দায়ের হয়েছেও প্রচুর। ফলে রাজ্যের স্কুল গুলিতে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ বারেবারে বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে।

এক দেশ, এক পরিবার, এক সন্তান, আইন করে চালু করা উচিত: বিজেপির শরিক নেতা

এক দেশ, এক পরিবার, এক সন্তান, আইন করে চালু করা উচিত

দীঘায় চলবে সি প্লেন, তৈরি হবে পুরীর মত জগন্নাথ দেবের মন্দির: মমতা ব্যানার্জী

দীঘা

সরকারের অনৈতিক সিদ্ধান্তে বিরুদ্ধে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে

সরকারের অনৈতিক সিদ্ধান্তে বিরুদ্ধে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে

অতিথি অধ্যাপকদের স্থায়ীকরণে ইউজিসির নিয়মকে লঙ্ঘন, আদালতের পথে চাকুরী প্রার্থীদের একাংশ!

অতিথি অধ্যাপকদের স্থায়ীকরণে ইউজিসির নিয়মকে লঙ্ঘন, আদালতের পথে চাকুরী প্রার্থীদের একাংশ!

কলেজের অতিথি অধ্যাপকদের ধামাকাদার বেতন বৃদ্ধি

কলেজের অতিথি অধ্যাপকদের ধামাকাদার বেতন বৃদ্ধি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *