Breaking News
Home / পলিটিক্স / উপযুক্ত চেনা মুখের অভাবেই কি, অন্য দলের বিক্ষুদ্ধদের টার্গেট করছে রাজ্য বিজেপি?

উপযুক্ত চেনা মুখের অভাবেই কি, অন্য দলের বিক্ষুদ্ধদের টার্গেট করছে রাজ্য বিজেপি?

বিশ্ব বার্তা নিউজ পোর্টাল: দলে কি উপযুক্ত প্রার্থী নেই? অন্য দলের বিক্ষুদ্ধরাই কি বিজেপির ভরসা? এতদিনে তৃণমূলের টিকিট মেলেনি বা শাসক দলের ক্ষুব্ধ নেতাদেরই টার্গেট করছিল বিজেপি। এখন আবার আরও কয়েকটি রাজনৈতিক দলের নেতাদের দিকেও নজর রাখছে বিজেপি। তাদেরকে লোকসভায় দাঁড় করানোরও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হচ্ছে। বিরোধীরা বলছে, আসলে বিজেপির এমন কোনো চেনা মুখ নেই, যে তাকে দাড় করলেই ভোটে জিতে যাবে। তাই চেনা মুখের অভাবেই এভাবে লোকসভার রণকৌশল ঠিক করতে গিয়ে অন্য দলের মুখাপেক্ষী থাকতে হচ্ছে গেরুয়া শিবিরের।

দলের মধ্যে কারা করা আসন্ন ভোটে প্রার্থী হতে পারেন, তা নিয়েও এখনো ধোঁয়াশা রয়ে গেছে। বিজেপি সূত্রে খবর, দিলীপ ঘোষ এবার মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে ভোটে দাঁড়াতে পারেন। রাহুল সিনহা আবারও উত্তর কলকাতা থেকেই ভোটে লড়বেন। শমীক ভট্টাচার্য এবার দমদমে থেকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করার ইচ্ছেপ্রকাশ করেছেন। লকেট চট্টোপাধ্যায়ও এবার বাঁকুড়ায় দাঁড়ানোর ইচ্ছেপ্রকাশ করেছেন। এছাড়া রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রে দাড়ানোর আর এক দাবিদার। ঘাটাল থেকে এবার একদা মমতা ব্যানার্জীর স্নেহ-ধন্যঅবসরপ্রাপ্ত আইপিএস ভারতী ঘোষকে চাইছে বিজেপি। কৃষ্ণনগরে এবারও সত্যব্রত মুখোপাধ্যায় প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। তিনি না হলে জয়প্রকাশ মজুমদার টিকিট পেতে পারেন কৃষ্ণনগর থেকে। রানাঘাট লোকসভায় এবার ঠাকুর বাড়ির সদস্য শান্তনু ঠাকুরকে প্রার্থী করতে চলেছে গেরুয়া শিবির। সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া সৌমিত্র খান এবং অনুপম হাজরাকে তাদের পুরোনো কেন্দ্রেই দাড় করবে বলে জানা গিয়েছে।

কাল তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ পাওয়ার পরেই তৎপরতা বেড়েছে বিজেপির। তৈরি হচ্ছে স্ট্র্যাটেজি। উপযুক্ত প্রার্থী অথবা কাঁটা দিয়ে কাঁটা তোলার কৌশলেই এবার বাজিমাত করতে চাইছে বিজেপি। এদিকে গত কালই দলে যোগ দিয়েছে সিপিআইএম ও কংগ্রেসের এক প্রাক্তন ও এক বর্তমান বিধায়ক। তাদেরকে দল কিভাবে ব্যাবহার করে সেটাই দেখার। আদতে দলের অনেকে পুরোনো নেতা কর্মীরা প্রার্থী হতে চাইলেও তারা খুব একটা চেনা মুখ নন, অথচ দল চেনামুখের উপর ভরসা করতে চাইছে বিজেপি। সেকারণে বিক্ষুদ্ধ তৃণমূল, কংগ্রেস, সিপিএমের চেনা মুখই ভরসা গেরুয়া শিবিরের।

পশ্চিমবঙ্গে 42টি আসনে মোট 7 দফায় ভোট হবে। প্রথম দফা 12 এপ্রিল, দ্বিতীয় দফা 18 এপ্রিল, তৃতীয় দফা 23 এপ্রিল, চতুর্থ দফা 29 এপ্রিল, পঞ্চম দফা 6 মে, 12 মে ষষ্ঠ দফা এবং 19 মে সপ্তম দফার ভোট হবে।

Check Also

করোনার কোপে বন্ধ শিক্ষকদের বদলি প্রক্রিয়া, থমকে অতিথি অধ্যাপকদের ডক্যুমেন্ট ভেরিফিকেশন, চিন্তায় শিক্ষকরা!

নিউজ ডেস্ক: করোনা সংক্রমণের আগে রাজ্যে বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়েছিল সরকার। চাকরিরত শিক্ষকদের নিজ নিজ …

আদৌ কি এ বছরের মধ্যে সম্পন্ন হবে এসএসসির নিয়োগ প্রক্রিয়া? চিন্তায় হবু শিক্ষকরা!

নিউজ ডেস্ক: করোনার জেরে গোটা বিশ্বেরই অর্থনীতির বেহাল দশা। দেশের আর্থিক অবস্থাও ভালো নয়। দেশজুড়ে …

প্রত্যেক দেশবাসীকে অন্তত একশো টাকা করে অনুদান হিসেবে দান করার আর্জি জানালেন আশা ভোঁসলে

নিউজ ডেস্ক: করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সিনেজগতের নামজাদা তারকারা ইতিমধ্যেই তাদের সামর্থ অনুযায়ী অর্থের অনুদান করেছেন …

লকডাউন পরিস্থিতিতে অসহায় দুঃস্থ পরিবারের হাতে খাদ্যদ্রব্য সামগ্রী তুলে দিল হেল্প কেয়ার সোসাইটি

নিউজ ডেস্ক: লকডাউন পরিস্থিতিতে অসহায় দুঃস্থ পরিবারের হাতে খাদ্যদ্রব্য সামগ্রী তুলে দিল নদীয়া জেলার হাঁসখালী …

লকডাউনের ফলে চরম বিপাকে গৃহশিক্ষকরা, মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন পেশ!

নিউজ ডেস্ক: সাম্প্রতিক মহামারী করোনা ভাইরাস সংক্রমনে বিপর্যস্ত দেশ থেকে বিদেশের মানুষ ও অর্থনীতি। প্রভাব …

আজ থেকেই শুরু হচ্ছে ভার্চুয়াল ক্লাস, রুটিন নিয়ে উঠছে প্রশ্ন!

নিউজ ডেস্ক: আজ, মঙ্গলবার থেকেই শুরু হচ্ছে ভার্চুয়াল ক্লাস। চলবে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত। বেলা ৩টে …

মুখ্যমন্ত্রীর আপদকালীন রিলিফ ফান্ডে‌ ১,০০,০০০ টাকা অনুদান বর্ধমান ফুডিস ক্লাবের

বর্ধমান: প্রায় ২৫০০ এরও বেশি পরিবারকে রেশন বিলি করা, প্রতিদিন প্রায় ১০০০ করে রুটি বিতরণ …