Breaking News
Home / ভারত বর্ষ / আবারও উজ্জ্বল হল বাংলার মুখ, বিশ্বের সবচেয়ে কম বয়সী প্রধান শিক্ষক বাবর আলী পেলেন ‘বিশ্ব শান্তি শিবির পুরস্কার’

আবারও উজ্জ্বল হল বাংলার মুখ, বিশ্বের সবচেয়ে কম বয়সী প্রধান শিক্ষক বাবর আলী পেলেন ‘বিশ্ব শান্তি শিবির পুরস্কার’

বিশ্ব বার্তা নিউজ পোর্টাল: আবারও উজ্জ্বল হল বাংলার মুখ। সেই সঙ্গে গর্বিত হল মুর্শিদাবাদ। এবার “বিশ্ব শান্তি শিবির পুরস্কার” (World Peace Camping Award) পেলেন বাবর আলী। তার বাড়ি বেলডাঙ্গার ভাবতায়। গত ৪ই আগস্ট রবিবার, দিল্লির বিজ্ঞান ভবনে তাঁকে পুরস্কৃত করা হয়। শিক্ষা বিষয়ে অসামান্য অবদানের জন্য তাঁর এই পুরুষ্কার দেওয়া হয়। 

বাবর আলী মাত্র ৯ বয়সে প্রতিষ্ঠিত করেন আনন্দ শিক্ষা নিকেতন। বর্তমানে বিদ্যালয়টিতে ১০ম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষা কার্যক্রম চলছে। প্রায় ৩০০ শিক্ষার্থী পড়াশুনা করছে সেখানে। গরিব, আর্থিকভাবে অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের বিনা বেতনে পাঠদান করা হয়।

২০০৯ সালে বিবিসির একটি প্রতিবেদনে মাত্র ৯ বছর বয়সে নিজস্ব বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাকারী বাবর আলীকে সারা বিশ্বের সামনে তুলে ধরে Youngest Headmaster in the World (বিশ্বের সবচেয়ে কম বয়েসি প্রধানশিক্ষক) হিসেবে পরিচিতি উল্লেখ করে। এরপর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংবাদ মাধ্যম বাবর আলীকে নিয়ে প্রতিবেদন বের করেছে। ২০০৯ সালে সংবাদ মাধ্যম সিএনএন-আইবিএন বাবর আলীকে রিয়েল হিরোজ এওয়ার্ডে ভূষিত করে। এনডিটিভি বাবর আলীকে ইন্ডিয়ান অব দ্যা ইয়ার পুরস্কার প্রদান করে। 

কিছুদিন আগে তিনি TED Fellow হিসেবে ইডেনবার্গ গিয়েছিলেন একটি সেমিনারে অংশগ্রহণ করতে। অক্সফোর্ড ও কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে বাবর আলীর জীবনী ছাপা হয়েছে।

Check Also

কোনো ধর্মীয় গ্রন্থ নয় প্রমাণ অনুন, রাম জন্মস্থান পুনর্জীবন কমিটির আইনজীবীকে প্রধান বিচারপতি

বাবরি মসজিদ

সাজানো ভণ্ডামি, পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্রের সঙ্গে আপনি বর্বরতা করেছেন, মুখ্যমন্ত্রীকে মুকুল রায়

বেশ কিছুদিন ধরেই রাজ্যের শাসকদল জোর দিয়েছে জন সংযোগ কর্মসূচি। পোশাকি নাম দেওয়া হয়েছে দিদিকে বলো কর্মসূচি। এই কর্মসূচি উপলক্ষেই গত বুধবার দিঘার দত্তপুরে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। সেখানে দীঘর উন্নয়নের জন্য বেশ কিছু প্রকল্প ঘোষণা করেন। এরপর বাড়ি বাড়ি ঢুকে সাধারণ মানুষের অভাব-অভিযোগ শোনেন তিনি। যেতে যেতেই রাস্তার পাশে একটি চায়ের দোকানে ঢুকে নিজে হাতে চা বানান মুখ্যমন্ত্রী। এরপর তা পরিবেশনও করেন। এই ঘটনাকে জীবনের ছোটো ছোটো আনন্দদায়ক মুহূর্ত হিসাবেই অভিহিত করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

পদোন্নতির মাধ্যমে শিক্ষক নেওয়া হলে, আদৌ কি যোগ্য প্রার্থীরা প্রধান শিক্ষক হতে পারবেন? উঠছে প্রশ্ন!

এসএসসির মাধ্যমে সহ শিক্ষক নিয়োগে বারে বারে উঠেছে অভিযোগ। কখনো বা এনসিটির রুলস না মানা আবার কখনো বা যোগ্য প্রার্থীকে বাদ দিয়ে অযোগ্য প্রার্থীকে মেধা তালিকায় জায়গা করে দেওয়া। শুধুই যে সহ শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে এমন অভিযোগ আছে তা নয়, প্রধান শিক্ষক নিয়োগ নিয়েও উঠেছে একাধিক অভিযোগ। এসএসসির বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে আদালতে মামলা দায়ের হয়েছেও প্রচুর। ফলে রাজ্যের স্কুল গুলিতে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ বারেবারে বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে।

এক দেশ, এক পরিবার, এক সন্তান, আইন করে চালু করা উচিত: বিজেপির শরিক নেতা

এক দেশ, এক পরিবার, এক সন্তান, আইন করে চালু করা উচিত

দীঘায় চলবে সি প্লেন, তৈরি হবে পুরীর মত জগন্নাথ দেবের মন্দির: মমতা ব্যানার্জী

দীঘা

সরকারের অনৈতিক সিদ্ধান্তে বিরুদ্ধে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে

সরকারের অনৈতিক সিদ্ধান্তে বিরুদ্ধে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু রাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে

অতিথি অধ্যাপকদের স্থায়ীকরণে ইউজিসির নিয়মকে লঙ্ঘন, আদালতের পথে চাকুরী প্রার্থীদের একাংশ!

অতিথি অধ্যাপকদের স্থায়ীকরণে ইউজিসির নিয়মকে লঙ্ঘন, আদালতের পথে চাকুরী প্রার্থীদের একাংশ!