Breaking News
Home / ভারত বর্ষ / অসাধারণ! দীর্ঘ ১১ বছর ধরে প্রতিদিন গলা সমান জল পেরিয়ে স্কুলে পৌঁছান ওড়িশার বিনোদিনী

অসাধারণ! দীর্ঘ ১১ বছর ধরে প্রতিদিন গলা সমান জল পেরিয়ে স্কুলে পৌঁছান ওড়িশার বিনোদিনী

নিউজ ডেস্ক: সমাজ গড়ার কারিগর হল শিক্ষক। পড়ুয়াদের ভবিষ্যৎ গড়ার দায়িত্ব হাতে থাকে শিক্ষিক–শিক্ষিকাদের উপর। যুবসমাজকে সঠিক পথের দিশা দিতে পরিশ্রমের শেষ নেই শিক্ষক–শিক্ষিকাদের। এরকম এক শিক্ষিকার নাম বিনোদিনী শামল। 

ওড়িশার ৪৯ বছর বয়সি শিক্ষিকা বিনোদিনী সমল শিশুদের পড়াতে স্কুলে পৌঁছানোর জন্য প্রতিদিন গলা সমান নদী পার হন। ৫৩ জন শিক্ষার্থী নিয়ে রথিয়াপাল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পৌঁছতে, বিনোদিনী বর্ষায় এক গলা গভীর সাপুয়া নদীটি পার হন। বিনোদিনী বলেন, তাঁর কাছে জল ভেঙে নদী পার হওয়া গুরুত্বপূর্ণ নয়, বাচ্চাদের কাছে পৌঁছে শিক্ষা দেওয়াই গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিদিন ভিজে কারণে তিনি বেশ কয়েকবার অসুস্থ হয়েছেন, কিন্তু কোনো ছুটি নেননি।

রথিয়াপাল প্রাথমিক বিদ্যালয়টি তার বাড়ি জড়িয়াপাল গ্রাম থেকে ৩ কিলোমিটার দূরে। তিনি চুক্তিভিত্তিক শিক্ষক হিসাবে স্কুলে শিক্ষকতা করছেন। মাসে ৭ হাজার টাকা বেতন পান। বিনোদিনী ২০০০ সালে শিক্ষা অধিদপ্তর দ্বারা নিযুক্ত হন, তবে তিনি এই স্কুলে ২০০৮ থেকে শিক্ষকতা করছেন। গত ১১ বছর ধরে স্কুলে পৌঁছতে এই নদী ভেঙেই যেতে হচ্ছে।

বিনোদিনী আরও বলেন, বর্ষায় পরিস্থিতি আরও খারাপ হয় এবং বাড়িতেও জল উঠে যায়। আমার কাজ আমার পক্ষে সব কিছু, আমি ঘরে বসে থাকব কী করে? কর্মজীবনের শুরুতে বেতন ছিল মাসে মাসে ১৭০০ টাকা। নদীর ওপরে ৪০ মিটার দীর্ঘ সেতুটি নির্মাণের জন্য প্রশাসনের কাছে একবার প্রস্তাব পাঠানো হয়েছিল, তবে এখনও পর্যন্ত এটি সেটি সম্ভব হয়নি।

গরম কালে জল শুকিয়ে যায়, তবে বর্ষার পরে বেশ কয়েক মাস ধরে একই অবস্থা অব্যাহত থাকে। বর্তমানে বিনোদিনীকে নিয়ে স্কুলে দুজন শিক্ষিকা রয়েছেন। বর্ষার দিনে অনেক সময় শিক্ষার্থী এবং প্রধান শিক্ষক বিদ্যালয়ে পৌঁছতে না পারলেও বিনোদিনী কখনও অনুপস্থিত থাকেন না। সম্প্রতি নদী পার হওয়ার সময় বিনোদিনির ছবি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বিনোদিনীর কথায়, তিনি সবসময় এক জোড়া কাপড় এবং মোবাইল প্লাস্টিকের ব্যাগে রাখেন। নদী পার হওয়ার সময় সেটা মাথায় রেখে নদী পার হন। স্কুলে পৌঁছানোর পরে গোলাপি পোশাক পরে নেন। শিক্ষিকাদের ওটাই ইউনিফর্ম। বাড়ি ফেরার সময়েও একই রুটিন। বিনোদিনীর মতো শিক্ষিকারাই এই দেশের সত্যিকারের গর্ব।

Check Also

জমা পড়ল লিখিত অভিযোগ, ৪০০ স্কুল শিক্ষকের ব্যাপারে তদন্তে পর্ষদ, হতে পারে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি!

নিউজ ডেস্ক: স্কুল শিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন পড়ানোর বিরুদ্ধে বেশ কিছুদিন ধরেই সরব ওয়েস্ট বেঙ্গল প্রাইভেট …

বড় ভাঙন বিজেপিতে, অন্তত ৬০০ জন বিজেপির নেতা-কর্মীর তৃণমূলে যোগদান!

নিউজ ডেস্ক: আবার ভাঙন গেরুয়া শিবিরে। এবার বিজেপির বড় ভাঙন হল হুগলিতে। কলকাতার মেয়র তথা …

এবার সিএএ-এর বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করছে শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চ

নিউজ ডেস্ক: এবার কেন্দ্রীয় সরকারের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (CAA) বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করছেন …

‘আমরা বুঝতেই পারছি না ভারত কেন সিএএ পাশ করল, এতে ভারতের জনগণকেই সমস্যায় পড়তে হচ্ছে’ শেখ হাসিনা

নিউজ ডেস্ক: সংসদের দুই কক্ষেই পাস হয়েছে সংশোধিত নাগরিকত্ব বিল। রাষ্ট্রপতিও স্বাক্ষর করে ফেলেছেন। ফলে …

জয়েন্ট এন্ট্রান্স মেন: ১০০/১০০! বাজিমাত ৯ পড়ুয়ার

নিউজ ডেস্ক: শুক্রবার প্রকাশিত হয়েছে জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষা মেনের ফলাফল। এবছর সারা ভারত জুড়ে জয়েন্ট …

খাদ্য সুরক্ষাকার্ডে বাবার নাম উল্লেখ করা হয়েছে KKR NIGHT RIDERS, কোথাও বা বাল ব্রহ্মচারী, ক্ষুব্ধ গ্রাহকরা

নিউজ ডেস্ক: এর আগে পদবি, বয়স এসবের গোলমাল তো হতই৷ ভুল দেখা যেত ঠিকানাতেও৷ কিন্তু …

কাজকর্মে খুশি নয় শিক্ষা দপ্তর, সরে যেতে হল এসএসসির চেয়ারম্যানকে

নিউজ ডেস্ক: অপসারিত হলেন পশ্চিমবঙ্গ স্কুল সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান সৌমিত্র সরকার। হাওড়ার জয়পুর কলেজের অধ্যক্ষ …

One comment

  1. Proud for you mam

Leave a Reply

Your email address will not be published.